Foto

Please Share If You Like This News

Buffer Digg Facebook Google LinkedIn Pinterest Print Reddit StumbleUpon Tumblr Twitter VK Yummly

বিশ্বব্যাংক দ্রুত পরিবর্তনশীল পারিপার্শ্বিকতায় বেশি পারিশ্রমিক ও গুণগত মানসম্পন্ন আরও অধিক চাকরির সুযোগ সৃষ্টির লক্ষ্যে বাংলাদেশকে ২৫ কোটি মার্কিন ডলারের (২৫০ মিলিয়ন) ডেভেলপমেন্ট পলিসি অপারেশন সহায়তা দেবে।


আজ বৃহস্পতিবার বিশ্বব্যাংকের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, নারী, যুবক ও অসচ্ছল জনগোষ্ঠীসহ নাগরিকদের জন্য অধিক ও ভালো চাকরির সুযোগ সৃষ্টির বাধাগুলো দূর করতে বাংলাদেশকে শক্তিশালী এক কর্মপন্থা ও প্রাতিষ্ঠানিক কাঠামো গড়ে তোলার লক্ষ্যে এ কর্মসূচিভিত্তিক কর্মসংস্থান উন্নয়ন ঋণ দেওয়া হবে।

সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, বাংলাদেশের বলিষ্ঠ অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি সত্ত্বেও চাকরি সুযোগ সৃষ্টির গতি মন্থর হয়ে তা তৈরি পোশাক খাতে সীমাবদ্ধ হয়ে পড়েছে। ২০১০ থেকে ২০১৬ সালের মধ্যে চাকরির হার ২ দশমিক ৭ শতাংশ থেকে ১ দশমিক ৮ শতাংশে নেমে এসেছে।

বিশ্বব্যাংকের বাংলাদেশ, ভুটান ও নেপালের কান্ট্রি ডিরেক্টর কিমিয়াও ফান বলেন, বাংলাদেশ প্রবৃদ্ধি হার বৃদ্ধি ও দারিদ্র্য বিমোচনে অসাধারণ অগ্রগতি সাধন করেছে। তবে অর্থনৈতিক এই প্রবৃদ্ধির সঙ্গে চাকরি সৃষ্টির হার তাল মেলাতে পারেনি। বাংলাদেশের উচ্চমধ্য আয়ের দেশে উন্নীত হওয়ার লক্ষ্য অর্জনে অধিক ও উন্নত চাকরির সুযোগ একটি পূর্বশর্ত।

উৎপাদন খাতে বহুমুখিতায় অধিক হারে কর্মসংস্থান সৃষ্টিতে এই সংস্কার বিনিয়োগ পরিবেশ, ব্যবসা-বাণিজ্যের বাধা অপসারণ এবং শুল্ক ও বাণিজ্য সহায়তা আধুনিকায়নে সহায়তা করবে।

বিশ্বব্যাংকের প্রধান অর্থনীতিবিদ অ্যান্ড টাস্ক টিম লিডার টমাস ফারোলি বলেন, এই কর্মসূচি শ্রমঘন কর্মকাণ্ডে বিনিয়োগ বৃদ্ধি, চাকরির গুণগত মানোন্নয়ন, ঝুঁকি সহনীয়তা বৃদ্ধি এবং চাকরিতে নারী, যুবক ও অভিবাসীদের অংশগ্রহণ নিশ্চিত করতে সহায়তা করবে। এতে বাজারভিত্তিক দক্ষতারও সৃষ্টি হবে।

 

bottom