Foto

Please Share If You Like This News

Buffer Digg Facebook Google LinkedIn Pinterest Print Reddit StumbleUpon Tumblr Twitter VK Yummly

ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি ও মণিপুরের মুখ্যমন্ত্রী এন বীরেন্দ্র সিংকে নিয়ে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে কটূক্তি করায় কেশরচন্দ্র ওয়াংথেম নামে মণিপুরের এক সাংবাদিককে এক বছরের কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে। ভারতের জাতীয় নিরাপত্তা আইনের (নাসা) ধারায় এমন সিদ্ধান্ত নিয়েছে মণিপুরের সরকার।


মণিপুরের এই সাংবাদিকের বিরুদ্ধে অভিযোগ, তিনি তাঁর ফেসবুক অ্যাকাউন্টে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি ও মণিপুরের মুখ্যমন্ত্রী এন বীরেন্দ্র সিংকে নিয়ে কটূক্তি করেন। এ কারণে গত ২৭ নভেম্বর মণিপুর পুলিশ ওয়াংথেমকে গ্রেপ্তার করে। তাঁর মুক্তির দাবিতে বিভিন্ন সংগঠন সোচ্চার হলেও তিনি ছাড়া পাননি।

গ্রেপ্তার সাংবাদিকের বিরুদ্ধে গতকাল শনিবার কঠোর সিদ্ধান্ত নিল মণিপুর সরকার। নাসার উপদেষ্টা কমিটির সুপারিশ মেনে ওয়াংথেমকে এক মাস কারাগারে রাখার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। ওয়াংথামের গ্রেপ্তারের ঘটনাকে ’দুর্ভাগ্যজনক’ বলে মন্তব্য করলেও বিবৃতি দেওয়ার বিষয়ে বেশ সতর্ক সর্বভারতীয় সাংবাদিক সংস্থা।

সংস্থার কার্যকরী সমিতির সদস্য প্রণব সরকার আজ রোববার প্রথম আলোকে বলেন, ’সাংবাদিক গ্রেপ্তার অবশ্যই দুর্ভাগ্যজনক। তবে মনে রাখতে হবে, সাংবাদিকরাও আইনের ঊর্ধ্বে নন।’একই সঙ্গে তিনি সাংবাদিকদের নিজেদের গণ্ডির মধ্যে থেকেই পেশাগত দায়িত্ব সামলানোর পরামর্শ দেন। তিনি বলেন, ’সুষ্ঠু গণতন্ত্রের বিকাশে প্রতিটি সংগঠন নিজেদের সীমাবদ্ধ এলাকায় কাজ করবে, এটাই নিয়ম। কারও উচিত নয় সেই সীমা অতিক্রম করা।’

bottom