Foto

Please Share If You Like This News

Buffer Digg Facebook Google LinkedIn Pinterest Print Reddit StumbleUpon Tumblr Twitter VK Yummly

গতকালই আর্জেন্টিনা দলে ফেরত আসার জন্য লিওনেল মেসিকে আহ্বান জানিয়েছিলেন স্ট্রাইকার পাওলো দিবালা। আজ তাঁর সঙ্গে একমত হলেন আরেক স্ট্রাইকার মাউরো ইকার্দিও বিশ্বকাপের পর থেকে মেসিকে ছাড়াই খেলে যাচ্ছে আর্জেন্টিনা।


মেসির জায়গায় দলে খেলছেন পাওলো দিবালা, মাউরো ইকার্দিরা। আপাতত এদের দিয়ে প্রীতি ম্যাচগুলো জেতা গেলেও, গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচগুলোতে যে এখনো আর্জেন্টিনার সবচেয়ে বড় তুরুপের তাস মেসি—এটা সবাই জানেন। তাই তো মেসিকে ফিরে পেতে চান সবাই! ম্যারাডোনা, স্কালোনি, দিবালার পর এবার ফিরে এসো মেসি বলে আহ্বান জানালেন ইকার্দিও।

বিশ্বকাপের দ্বিতীয় রাউন্ডে ফ্রান্সের কাছে হারার পর থেকেই জাতীয় দল থেকে এক রকম নির্বাসন নিয়েছেন লিওনেল মেসি। কবে জাতীয় দলের হয়ে আবার দেখা যাবে তাঁকে, আদৌ দেখা যাবে কি না, কেউই জানেন না। এমনকি বর্তমান কোচ লিওনেল স্কালোনিও না। স্কালোনিকে মেসি অনুরোধ করেছেন, তাঁকে যেন আপাতত জাতীয় দলে না ডাকা হয়। মেসির সিদ্ধান্তকে সম্মান জানিয়ে স্কালোনিও মেসির জায়গায় পাওলো দিবালা, মাউরো ইকার্দির মতো স্ট্রাইকারকে খেলিয়ে যাচ্ছেন। মেক্সিকোর বিপক্ষে প্রীতি ম্যাচে গোল করে পাওলো দিবালা, মাউরো ইকার্দির মতো স্ট্রাইকারেরাও বুঝিয়ে দিয়েছেন, আপাতত মেসিহীন আর্জেন্টিনাকে তাঁরা টানতে পারবেন। কিন্তু এভাবে আর কত দিন? গতকাল স্ট্রাইকার দিবালা তাই মেসিকে আহ্বান জানিয়েছিলেন তিনি যেন দ্রুত আর্জেন্টিনা দলে ফিরে আসেন। আজকে দিবালার সঙ্গে একই সুরে গলা মেলালেন আরেক স্ট্রাইকার ইকার্দি।

বিশ্বের সেরা খেলোয়াড় মেসি। মেসির মতো একজন খেলোয়াড়কে নিজের দলে পেতে সবাই চায়। আশা করব মেসি যেন অন্তত সামনের বছরে অনুষ্ঠিত হতে যাওয়া কোপা আমেরিকার আগেই জাতীয় দলে ফিরে আসেন, এভাবেই জাতীয় দলে মেসির গুরুত্ব বুঝিয়েছেন ইকার্দি। ক্যারিয়ারে সম্ভাব্য সকল পুরস্কার পেলেও জাতীয় দলে দলগত কোনো শিরোপা এখনো জিততে পারেননি মেসি। জিততে না পারলেও, সামনের কোপাতে এই মেসিই যে দলের সবচেয়ে বড় ভরসার নাম, ইকার্দি যেন আরেকবার বুঝিয়ে দিলেন সেটা।

মেসির পাশাপাশি দলের নতুন ম্যানেজমেন্ট নিয়েও কথা বলেছেন ইকার্দি, স্কালোনি, স্যামুয়েল ও আইমারের কাজে আমরা সবাই খুশি। আমাদের দলটা আস্তে আস্তে সংঘবদ্ধ হচ্ছে, তাদের অধীনে আরও উন্নতি করার সামর্থ্য রয়েছে আমাদের।

প্রশ্ন হলো, মেসি কি আদৌ এসব আকুতি শুনতে পাচ্ছেন?

bottom