Foto

Please Share If You Like This News

Buffer Digg Facebook Google LinkedIn Pinterest Print Reddit StumbleUpon Tumblr Twitter VK Yummly

মালদ্বীপের প্রেসিডেন্ট ইব্রাহিম সোলিহ তিনদিনের সফরে রোববার ভারতে পৌঁছেছেন। সফরকালে দ্বিপাক্ষিক সম্পর্ক মজবুত করার জন্য তিনি প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির সঙ্গে আলোচনায় বসবেন বলে জানানো হয়েছে। সেপ্টেম্বরে শক্তিশালী প্রতিদ্বন্দ্বী, সাবেক প্রেসিডেন্ট আব্দুল্লাহ ইয়ামিনকে ভোটে হারিয়ে ক্ষমতায় আসেন তিনি।


এরপর এটাই তার প্রথম বিদেশ সফর। ভারত সরকারের অতিথি হিসেবে তিনি রাষ্ট্রপতি ভবনে অবস্থান করছেন। কেন্দ্রীয় সরকারের মন্ত্রী হরদিপ সিং পুরি তাকে বিমানবন্দরে অভ্যর্থনা জানান। এক টুইট বার্তায় এ কথা নিশ্চিত করেন পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র রাভিশ কুমার। এ খবর জানিয়েছে টাইমস অব ইন্ডিয়া।

ইব্রাহিম সোলিহ এক সরকারি অনুষ্ঠানে বক্তব্যকালে ভারতকে মালদ্বীপের সবচেয়ে ঘনিষ্ঠ বন্ধু হিসেবে আখ্যায়িত করেন।

এছাড়াও দেশ দুটি অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ বাণিজ্যিক অংশীদার বলেও উল্লেখ করেন তিনি। সরকারি এক সূত্র জানায়, এই সফরে লক্ষণীয় বিষয় হবে দুই দেশের নাগরিকদের জন্যই ভিসা পাওয়া সহজতর করার চুক্তি।

সফরকালে সোমবার ইব্রাহিম সোলিহকে আনুষ্ঠানিক অভ্যর্থনা জানানোর কথা। এদিন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির সঙ্গে তার আলোচনায় বসার কথা রয়েছে। এ ছাড়া ভারতের প্রেসিডেন্ট রাম নাথ কোবিন্দের সঙ্গেও তার সাক্ষাতের কথা রয়েছে। ভাইস প্রেসিডেন্ট এম ভেঙ্কাইয়া নাইডু এবং পররাষ্ট্রমন্ত্রী সুষমা স্বরাজের সঙ্গেও সাক্ষাত করার কথা তার।

প্রেসিডেন্ট সোলিহ মঙ্গলবার দেশে ফেরার আগে তাজমহল পরিদর্শন করবেন। এক মাস আগে তার শপথ অনুষ্ঠানে যোগদান করেন নরেন্দ্র মোদি। তখন মোদি জানিয়েছিলেন, সোলিহর সঙ্গে কাজ করার জন্য তিনি উন্মুখ হয়ে আছেন। সে সময় তারা উভয়েই দুই দেশের মধ্যকার সম্পর্ক আরো ঘনিষ্ঠ করার আশাবাদ ব্যক্ত করেন। উল্লেখ্য, মালদ্বীপের রাজনৈতিক অশান্তির কারণে ভারত-মালদ্বীপের মধ্যকার সুস¤পর্ক বাধাগ্রস্ত হয়েছিল। তবে বর্তমানে দুই নেতা দুই দেশের মধ্যে আবারো সুসম্পর্ক প্রতিষ্ঠার চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন।

bottom