Foto

Please Share If You Like This News

Buffer Digg Facebook Google LinkedIn Pinterest Print Reddit StumbleUpon Tumblr Twitter VK Yummly

গত শুক্রবার আয়ারল্যান্ড থেকে ইংল্যান্ড না গিয়ে সরাসরি দেশে ফিরে আসেন বাংলাদেশ অধিনায়ক মাশরাফি বিন মুর্তজা। পরিবারের সঙ্গে তিন দিনের ছুটি কাটিয়ে বিশ্বকাপের মিশনে আজ বুধবার আবার ঢাকা ছেড়ে গেলেন অধিনায়ক। সকাল সাড়ে ১০টায় এমিরেটস এয়ারলাইন্সের ফ্লাইটে লন্ডনের উদ্দেশে দেশ ছাড়েন মাশরাফি।


আগামীকাল বৃহস্পতিবার লন্ডনে বিশ্বকাপের সব অধিনায়ককে নিয়ে আইসিসি একটি অনুষ্ঠানের আয়োজন করছে। যার কারণে আগে লন্ডনে আইসিসি অনুষ্ঠান শেষ করে কার্ডিফে সতীর্থদের সঙ্গে যোগ দেবেন নড়াইল এক্সপ্রেস। দেশ ছাড়ার আগে বাংলাদেশ দল ও বিশ্বকাপে সফলতার জন্য সবার কাছে দোয়া চেয়েছেন মাশরাফি। অধিনায়ক বলেন, ’সবাই দোয়া করবেন, যাতে আমরা ভালো করতে পারি। ত্রিদেশীয় সিরিজ জিতে সবাই বেশ আত্মবিশ্বাসী, আপনারা দোয়া করবেন বাংলাদেশ দলের জন্য।’

বহুজাতিক টুর্নামেন্টের ফাইনাল থেকে বারবারই খালি হাতে ফিরতে হয়েছিল বাংলাদেশকে। তবে নিজেদের সপ্তম ফাইনালে আর ভুল নয়। সদ্য শেষ হওয়া ত্রিদেশীয় সিরিজের ফাইনালে জয়ী হয়ে ফিরেছেন লাল-সবুজরা। বিশ্বকাপের আগে চ্যাম্পিয়নের এই তমকাটা সতীর্থদের আত্মবিশ্বাস বাড়িয়েছে বলে মনে করেন মাশরাফি। বিশ্বকাপের শুরুটা ভালো করতে পারলে সেখানেও ভালো কিছু হবে বলে আশা করছেন অধিনায়ক। তাঁর কথায়, ’দুটি একদম আলাদা টুর্নামেন্ট। আশা করি, এখন সবার আত্মবিশ্বাস ভালো আছে। টুর্নামেন্ট যেহেতু আলাদা, তাই ওখানেও শুরুটা খুব গুরুত্বপূর্ণ। ভালো শুরু করতে পারলে আশা করি, ভালো কিছু হবে ইনশাআল্লাহ।’

ছুটি শেষ করে একই দিনে পরিবারসহ দুবাই থেকে লন্ডনের উদ্দেশে রওনা হবেন ওপেনার তামিম ইকবাল। লন্ডন থেকে বৃহস্পতিবার তিনিও কার্ডিফে দলের সঙ্গে যোগ দেবেন। স্কোয়াডের বাকি ১৩ জন সদস্য ত্রিদেশীয় সিরিজ শেষে গত শনিবার আয়ারল্যান্ড থেকে লেস্টারে পৌঁছে গেছেন। সেখানে তিন দিনের অনুশীলন ক্যাম্প করেছে টাইগাররা। লেস্টার থেকে সতীর্থদের নিয়ে লন্ডনে পাড়ি জমাবেন মাশরাফি বিন মুর্তজা। লেস্টারের অনুশীলনে ছিলেন না বোলিং কোচ কোর্টনি ওয়ালশও। জরুরি পারিবারিক প্রয়োজনে তিনি ফিরছেন জ্যামাইকায়। ছুটি কাটিয়ে তিনিও দলের সঙ্গে যোগ দেবেন কার্ডিফে।

২৬ ও ২৮ মে কার্ডিফে ভারত ও পাকিস্তানের বিপক্ষে আইসিসির অফিশিয়াল প্রস্তুতি ম্যাচ খেলবে বাংলাদেশ। মূলত বৃহস্পতিবার থেকেই আইসিসির অতিথি হিসেবে শুরু হবে টাইগারদের বিশ্বকাপ মিশন। আগামী ২ জুন ওভালে দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে ম্যাচ দিয়ে বিশ্বকাপ শুরু করবে লাল-সবুজরা।

bottom