Foto

Please Share If You Like This News

Buffer Digg Facebook Google LinkedIn Pinterest Print Reddit StumbleUpon Tumblr Twitter VK Yummly

বাংলাদেশি ভিসা পাওয়া নিয়ে হঠাৎ সমস্যায় পড়েছেন ভারতের ত্রিপুরা রাজ্যের মানুষ। বাংলাদেশে যাওয়ার ভিসা দেওয়া পুরোপুরি থমকে রয়েছে টানা নয় দিন। ভিসা দেওয়া কবে চালু হবে, সেটাও বলতে পারছে না আগরতলার বাংলাদেশ সহকারী হাইকমিশন।


ডিজিটাল বাংলাদেশ কর্মসূচির হাত ধরে আগরতলার সহকারী হাইকমিশনে চালু হয় এমআরভি বা মেশিন রিডেবল ভিসা পদ্ধতি। অনলাইন আবেদনের পর স্টিকারের মাধ্যমে দেওয়া হয় ভিসা। কিন্তু বেশ কিছুদিন ধরেই সেখানে স্টিকার নেই। এ কারণে বাংলাদেশ যাওয়ার জন্য ভিসা পাওয়া যাচ্ছে না। গত ১৪ ডিসেম্বর থেকে ভিসা দেওয়া পুরোপুরি বন্ধ।

বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধে ত্রিপুরার অবদানের কথা মাথায় রেখে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের উদ্যোগে উত্তর-পূর্ব ভারতের মধ্যে ত্রিপুরায় বাংলাদেশ মিশন চালু হয়। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সেই মিশনকে সহকারী হাইকমিশনে উন্নীত করেন।

সরাসরি বাস এবং অন্যান্য যোগাযোগমাধ্যম চালু হওয়ায় বাণিজ্যিকসহ নানা কারণে বাংলাদেশে যাওয়ার প্রবণতা বেড়েছে ত্রিপুরাবাসীর। আত্মীয়তা সূত্রেও বহু মানুষ বাংলাদেশের বিভিন্ন প্রান্তে যাতায়াত করেন ত্রিপুরা থেকে। ভিসা দেওয়া বন্ধ থাকায় এসব মানুষ বিপাকে পড়েছেন। প্রতিদিন বহু মানুষ ভিড় করছেন সহকারী হাইকমিশনে। কিন্তু ভিসা না পেয়ে ফিরে আসছেন।

জানা গিয়েছে, হাতে লিখে ভিসা দেওয়ার অনুমতি পায়নি হাইকমিশন কর্তৃপক্ষ। তাই তারাও নিরুপায়। তাকিয়ে আছেন ঢাকার নির্দেশের অপেক্ষায়।

এ বিষয়ে প্রশ্ন করা হলে নবনিযুক্ত সহকারী হাইকমিশনার কিরীটী চাকমা প্রথম আলোর কাছে স্বীকার করেন স্টিকারজনিত ভিসা পদ্ধতির সমস্যার কথা। তবে সমস্যাটি সাময়িক বলে তিনি মনে করেন। তিনি বলেন, ‘ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের সঙ্গে আমরা নিয়মিত যোগাযোগ রাখছি। তারা নির্দেশ দিলেই আমরা ফের ভিসা দিতে শুরু করব। আশা করি, শিগগিরই সমস্যাটি মিটে যাবে।

bottom