Foto

Please Share If You Like This News

Buffer Digg Facebook Google LinkedIn Pinterest Print Reddit StumbleUpon Tumblr Twitter VK Yummly

ছবি তুলে ইন্টারনেটে আয় । ফটোগ্রাফি একটা শখের বিষয়। অনেকেই ছবি তুলতে পছন্দ করেন। শখের বশেই প্রতিনিয়তই ক্যামেরায় (Camera) ক্লিক করে যেতে থাকেন এবং অনেক অসাধারণ মুহূর্তগুলো ক্যামেরায় বন্দী করেন। এই শখটাকেই আজকাল অনেকে পেশা বানিয়ে নিচ্ছেন। শখের সঙ্গে যদি পেশার সামঞ্জস্য হয়ে যায় তাহলে ক্ষতি কী? শখ থেকেই যদি হয়ে যায় অন্নের সংস্থান তাহলে সেটাই তো ভালো। তাই নয় কী? ফটোগ্রাফির এই শখটি ব্যবহার করেই ইচ্ছা করলে আয় করতে পারবেন ইন্টারনেট থেকে। কিংবা পেশার বিকল্প হিসেবেও ব্যবহার করা যায় ফটোগ্রাফিকে। বর্তমানে অনেকেই ফটোগ্রাফি করে লক্ষ লক্ষ টাকা ইনকাম করছেন। তাহলে আসুন এবার জেনে নিই শখের ফটোগ্রাফি করে কি কি প্রক্রিয়ায় ইন্টারনেট থেকে আয় করা যায় ।


অনলাইনে প্রতিদিন লক্ষ লক্ষ কপি ছবি বিক্রি হয়। আসলে ছবিটি নয়। ছবিটি ব্যবহার করার অনুমতি (Usage Right) বিক্রি হয়। অর্থাৎ আপনি যদি আপনার তোলা কোন ছবি বিক্রয় করতে দেন তবে যে কিনবে সে আসলে তার প্রয়োজন মতো ছবিটি ব্যবহার করার অনুমতি পাচ্ছে, তারপরও আপনার ছবি আপনারই থেকে যাবে। বিক্রি করতে পারেন আরেকজনের কাছে। ব্যাপারটি একটু তাহলে খুলেই বলি।

আমার একটি ওয়েবসাইট আছে ফুড লাইফ (Food Life) নামের। এখানে আমি যদি প্রতিদিন ১০ টি পোস্ট করতে চাই তবে সেই পোস্ট এর সাথে অবশ্যই আমাকে কমপক্ষে ১০ টি ছবি আপলোড করতে হবে। এবং অবশ্যই পোস্ট এর সাথে মিল রেখে। ছবি ছাড়া বা বেমানান ছবি ব্যবহার করলে অবশ্যই আমার ওয়েবসাইট এর মান কমে আসবে তাই আমার কাছে ছবি অনেক গুরুত্বপূর্ণ। এখন কথা হচ্ছে এতো ছবি কোথায় পাওয়া যাবে? এখানেই হচ্ছে অনলাইন ফটো স্টক মার্কেট (Photo Stock Market) এর কাজ। আমাকে শুধু সেখান থেকে আমার প্রয়োজন মতো ছবি বাছাই করে কিনে নিতে হবে। আর ছবিগুলো কোন না কোন শখের ফটোগ্রাফারই(Photographer) তুলেছেন।

স্টক ফটোগ্রাফি মার্কেট কিভাবে কাজ করেঃ ব্যাপারটি খুবই সাধারণ। যদি আপনি ফটোগ্রাফার হয়ে থাকেন এবং আপনার তোলা ভালো মানের ছবি থাকে যা আপনি বিক্রয় করতে চান তা বাছাই করুন। এবার যেকোন স্টক মার্কেট (Stock Market) এ আপনার তোলা ছবি আপলোড করুন। মানানসই টাইটেল (Title), ছবির ধরণ অনুযায়ী ক্যাটাগরি (Category), ট্যাগ (Tag) ইত্যাদি ব্যবহার করে ছবিটি পাবলিশ (Publish) করুন। আপনার কাজ মোটামুটি শেষ। এবার স্টক মার্কেট ছবিটির গুরুত্ব অনুযায়ী ক্রেতাদের দেখাতে থাকবে এবং বিক্রয় করতে থাকবে। যত কপি বিক্রয় হবে আপনি তার বিপরীতে একটি অর্থ পাবেন। অবশ্যই তারা সেখান থেকে তাদের লাভের অংশ রেখে দিবে। এবং এতে ছবিগুলোর জন্য মার্কেটিং করা এবং অর্থ লেনদেন এর যাবতীয় চার্জ যুক্ত থাকবে।

কিংবা ওই ঝামেলায় না জড়াতে চাইলে ছবি বিক্রি করার জন্য নিজের একটি পার্সোনাল ওয়েবসাইট তৈরি করতে পারেন। যদি নিজেই নিজের গ্যালারী পরিচালনা করতে চান তাহলে আপনাকে বেশকিছু কাজ করতে হবে। একটি ওয়েবসাইট তৈরী করতে হবে, সেটা আকর্ষনীয় করতে হবে, সেখানে ভিজিটর আসার ব্যবস্থা করতে হবে, কেউ কিনলে সেই অর্থ গ্রহনের স্বয়ংক্রিয় ব্যবস্থা রাখতে হবে ওয়েবসাইটেই। এই ব্যবস্থায় নিজে বিক্রি করলে লাভ সবচেয়ে বেশি, তারপরও পুরো কাজটি বেশ জটিল। আর এই জটিল কাজটি আপনার জন্য সহজ করে দিচ্ছি আমরা, এরকম সম্পূর্ণ নিজের ওয়েবসাইট সল্পমূল্যে বানাতে চাইলে আমাদের কন্টাক্ট পেজে যোগাযোগ করুন।
কি ধরণের ছবি বিক্রয় করা যায়
আসলে এর কোন নির্দিষ্ট ধরণ (Type) নেই। প্রায় সব ধরণের ছবিই এখানে বিক্রয় করা যায়। শুধু ছবির মান ভালো হতে হবে। আপনি প্রকৃতির (Nature) ছবি তুলতে পারেন, খাবারের (Food) ছবি তুলতে পারেন, আকাশের ছবিতুলতে পারেন, পশুপাখির (Birds and Animals) ছবি তুলতে পারেন আবার চাইলে কাউকে মডেল (Artist/Model) বানিয়ে তার ছবিওতুলতে পারেন। তবে কোন মানুষের ছবি হলে অর্থাৎ মডেল হিসেবে কেউ থাকলে তার একটি অনুমতি পত্র (Agreement) প্রয়োজন হবে। অর্থাৎ তার ছবিটি সে ব্যবহারের অনুমতি দিচ্ছে সেরকম একটি এগ্রিমেন্ট। তবে এই এগ্রিমেন্ট এর কপি ফটো স্টক মার্কেটগুলোই দিবে। আপনাকে শুধু সঠিকভাবে পূরণ করে দিতে হবে। আর যেকোন কিছুর ছবি তোলা যাবে মানে এই নয় যে ব্যবহারের অযোগ্য বা কাজে আসবে না এমন ছবি তুলেও বিক্রয় করা যাবে। যেহেতু কারো প্রয়োজন এর জন্যই কেউ ছবি কিনবে সেহেতু তাদের কাজে আসবে এমন ছবিই দরকার। আপনি নমুনা হিসেবে স্টক মার্কেটগুলোতে ঘুরে দেখতে পারেন। সবচেয়ে ভালো হয় টপ সেল হওয়া ছবিগুলো দেখলে। এতে আপনি কোয়ালিটি, ধরণ, মার্কেট চাহিদা ইত্যাদি বুঝতে পারবেন। তবে অনেক সময় সাধারণ মনে হওয়া একটি ছবিও সবচেয়ে বেশী বিক্রি হতে পারে। তাই যতো বেশী সম্ভব ছবি আপলোড করা ভালো।

কিভাবে সফল হবেন
আসলে প্রথম ছবি বিক্রয় করতে নামলে অবশ্যই আপনি সাথে সাথে সফলতা পাবেন না। কেননা বেশীরভাগ ক্রেতা টপ সেলার এর দিকেই বেশি নজর দেয়। এক্ষেত্রে আপনি যদি নতুন হয়ে থাকেন তবে আপনাকে একটু কষ্ট করতেই হবে। নিয়মিত ছবি আপলোড করতে থাকা, ভালো মানের কিছু ছবি বিনামূল্যে ব্যবহারের অনুমতি দেয়া, নিজের পোর্টফলিও ওয়েবসাইট বা ব্লগ ব্যবহার করে মার্কেটিং করা ইত্যাদি এর মাধ্যমে আপনি হয়তোবা আপনার ছবি বিক্রয়ের পরিমাণ বাড়াতে পারবেন। তবে এর জন্য আপনাকে ভালোই কষ্ট করতে হবে। তবে সফল হতে হলে কষ্ট করতেই হয় এবং সেই সাথে লেগে থাকতে হয়।

ছবি তুলে আয় করতে সাহায্য করে এমন কিছু সাইটের মাঝে উল্লেখযোগ্য হলঃ

http://www.istockphoto.com
http://www.shutterstock.com
http://www.gettyimages.com
http://www.fotolia.com
http://www.imageporter.com
http://www.imgspice.com

সাধারণত উপরে ইন্টারনেট ব্যবহার করে ফটোগ্রাফি থেকে আয়ের কথা উল্লেখ করা হয়েছে। এর বাইরেও একজন ফটোগ্রাফার সবচেয়ে বেশি আয়ের সুযোগ পান ইভন্টের ফটোগ্রাফি করে। যে কোনো অনুষ্ঠানের ছবি তোলার পাশাপাশি ফটোগ্রাফিক স্টুডিও ও সব ধরনের আয়ের জন্যই ফটোগ্রাফি আপনার অন্যতম প্রধান আয়ের উৎস হতে পারে।

bottom