Foto

Please Share If You Like This News

Buffer Digg Facebook Google LinkedIn Pinterest Print Reddit StumbleUpon Tumblr Twitter VK Yummly

গুগলের প্লে স্টোর থেকে অনেকেই দরকারি অ্যাপ ডাউনলোড করেন। কিন্তু গুগলের প্লে স্টোর এখন আর নিরাপদ নয়—এ কথা গুগলও স্বীকার করেছে। গুগলের এ প্ল্যাটফর্মে ক্ষতিকর নানা প্রোগ্রাম ছড়িয়ে পড়েছে। সাইবার নিরাপত্তা বিশেষজ্ঞরা তাই গুগল প্লে স্টোর থেকে অ্যাপ ডাউনলোড করার সময় সতর্ক থাকতে পরামর্শ দেন।


তাঁরা বলেন, অ্যান্ড্রয়েড সফটওয়্যার ব্যবহারকারীদের লক্ষ্য করে নানা ক্ষতিকর প্রোগ্রাম তৈরি করে সাইবার দুর্বৃত্তরা। এসব অ্যাপ ডাউনলোড করলে ব্যক্তিগত তথ্য চুরি হতে পারে। এ ছাড়া নানা রকম ক্ষতির শিকার হতে পারেন ব্যবহারকারী।

সাইবার দুর্বৃত্তদের হাত থেকে সুরক্ষিত থাকতে প্লে স্টোর ব্যবহারের ক্ষেত্রে করণীয় নিয়ে বেশ কিছু পরামর্শ দিয়েছে গুগল। তাদের এক ব্লগপোস্টে বলা হয়, ‘আমাদের পক্ষ থেকে সাইবার দুর্বৃত্তদের রুখতে অনেক কিছু করা হয়। তবে গুগল প্লেকে নিরাপদ রাখতে আপনাদের সাহায্য প্রয়োজন। অ্যাপ ও গেম যাতে নিরাপদে ডাউনলোড ও ব্যবহার করতে পারেন, এ জন্য কিছু নিয়ম আপনাদের মানতে হবে।’

গুগলের পরামর্শগুলো হলো:

১. গুগল প্লে স্টোরে অর্থ বা কোনো উপহারের বিনিময়ে কোনো বাজে অ্যাপ সম্পর্কে ভালো পর্যালোচনা লিখবেন না।

২. কোনো গেম বা অ্যাপ সম্পর্কে বিদ্বেষপ্রসূত কোনো মন্তব্য লিখবেন না। গঠনমূলক সমালোচনা বা পর্যালোচনা লিখতে পারেন।

৩. নীতিমালা ভঙ্গ করে—এমন যৌনতা, নিপীড়নমূলক বা খাপছাড়া মন্তব্য করবেন না।

৪. গুগলের কমেন্ট নীতিমালা পড়ে নিয়ে তারপর পর্যালোচনা লিখুন।

৫. গুগল প্লে স্টোরে কোনো অ্যাপ সম্পর্কে বাজে বা খাপছাড়া মন্তব্য পেলে তা স্প্যাম বলে চিহ্নিত করুন। এতে ডেভেলপাররা সেটি পর্যালোচনা করতে পারবেন।

৬. গুগলের ডেভেলপার যাঁরা, তারা কোনোভাবেই অর্থ খরচ করে পর্যালোচনা দেওয়ার জন্য কাউকে ভাড়া করবেন না।

৭. অ্যাপের মধ্যেই অ্যাপের রেটিং বাড়ানোর জন্য আকর্ষণীয় প্রচার চালাবেন না। এটা নীতিমালা লঙ্ঘন করে।

৮. গুগল প্লে ডেভেলপার পলিসি অবশ্যই পড়বেন।

গুগলের পক্ষ থেকে এ নির্দেশনাগুলো ছাড়াও সতর্ক করা হয়েছে, ভুয়া মন্তব্য তারা ছেঁটে ফেলছে। তারা কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা ও কর্মীদের কাজে লাগিয়ে ক্ষতিকর অ্যাপ সরানোর পাশাপাশি ভুয়া মন্তব্য, রেটিং ও পর্যালোচনার বিরুদ্ধে কাজ শুরু করেছে।

bottom