Foto

Please Share If You Like This News

Buffer Digg Facebook Google LinkedIn Pinterest Print Reddit StumbleUpon Tumblr Twitter VK Yummly

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের তিন হাইপ্রোফাইল ব্যক্তিকে বিষ মেশানো চিঠি পাঠিয়ে ছিলেন তিনি। কারণ একসঙ্গে তিনজনকে হত্যা করতে চেয়েছিলেন। কিন্তু শেষ রক্ষা হল না মার্কিন নৌসেনার সাবেক কর্মী উইলিয়াম ক্লাইড অ্যালেনের।


সূত্রের খবর, তার বিরুদ্ধে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পকে বিষক্রিয়ায় হত্যার অভিযোগ উঠেছে। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্রমন্ত্রী জিম ম্যাটিস, এফবিআই প্রধান ক্রিস্টোফার রে এবং নৌবাহিনীর প্রধান অ্যাডাম জন রিচার্ডসনকেও একই ধরনের চিঠি পাঠিয়ে ছিলেন অ্যালেন। কান্ট্রি জেলে পুলিশের জেরায় এই অভিযোগ স্বীকার করেছেন অ্যালেন।

হোয়াইট হাউস সূত্রে খবর, মার্কিন প্রেসিডেন্টের কাছে মারাত্মক বিষমিশ্রিত চিঠি পাঠিয়েছিলেন ৩৯ বছর বয়সী সাবেক এই নৌসেনা কর্মী। রাইসিন নামক মারাত্মক বিষ মিশিয়ে তিনজনকে চিঠি পাঠিয়ে ছিলেন তিনি। তবে হোয়াইট হাউজ পর্যন্ত পৌঁছানোর আগেই সেই চিঠি বাজেয়াপ্ত করা সম্ভব হয়।

পুলিশ সূত্রে খবর, ১৯৯৮ থেকে ২০০২ পর্যন্ত মার্কিন নৌবাহিনীতে কাজ করেছেন অ্যালেন। তারপর ২০০৫ সালে তার বিরুদ্ধে দুটি নাবালিকার ওপর যৌন নির্যাতন চালানোর অভিযোগ ওঠে। এমনকি, ২০০৮ সালে বেআইনি অস্ত্র রাখার জন্য গ্রেফতারও হন তিনি। জেল থেকে ছাড়া পান ২০১১ সালে।

তারপরই এই ভয়ঙ্কর ছক করেন অ্যালেন। কিন্তু কেন?‌ তা এখনও জানাননি আটক অ্যালেন। তবে এই বিষ কোনভাবে মানুষের শরীরে প্রবেশ করলে ৪৮ ঘন্টার মধ্যে সেই ব্যক্তির মৃত্যু নিশ্চিত বলে মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা।

bottom