Foto

Please Share If You Like This News

Buffer Digg Facebook Google LinkedIn Pinterest Print Reddit StumbleUpon Tumblr Twitter VK Yummly

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে প্রার্থীতা ফিরে পেতে রাজধানীর আগারগাঁওয়ের নির্বাচন কমিশন ভবনের দশম তলায় স্থাপিত এজলাসে চলছে আপিল শুনানি। আজ শুনানির দ্বিতীয় দিনে বেলা ১ টা পর্যন্ত ৭৭ জনের আপিল শুনানি হয়েছে। এর মধ্যে আপিল গৃহীত হয়েছে ৪৪ জনের। আবেদন বাতিল হয়েছে জাতীয় পার্টির সদস্য বিদয়ী মহাসচিব রুহুল আমিন হাওলাদারের। তিনি নির্বাচন করতে পারবেন না। ঋণখেলাপি হওয়ায় তাঁর মনোনয়নপত্র বাতিল হয়ে যায়।


তবে আপিল গ্রহণ হয়েছে জাতীয় পার্টির মাসুদ পারভেজ (বরিশাল–২) ও বিএনপির ফাহিমা হোসাইন জুবলির (ঢাকা–১)।

গতকাল শুনানির প্রথম দিনে ১৬০ টি আপিল নিষ্পত্তি করা হয়। এর মধ্যে গৃহীত হয় ৮০ টি। বাতিল হয় ৭৬টি। বাকি ৪টি স্থগিত অবস্থায় রয়েছে।

বুধবার নির্বাচন কমিশন সচিব হেলালুদ্দীন আহমদ বলেন, মনোনয়নপত্র বাতিলের বিরুদ্ধে ৫৪৩ জন প্রার্থী নির্বাচন কমিশনে (ইসি) আপিল করেছেন। বাছাইয়ের সময় ৭৮৬ জনের মনোনয়নপত্র বাতিল হয়েছিল। তার মানে, ২৪৩ জন প্রার্থী ইসির সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে আপিল করেননি। আপিলগুলোর নিষ্পত্তি হবে আগামী ৬, ৭ ও ৮ ডিসেম্বর। প্রথম দিনে ৮৪টি, দ্বিতীয় দিনে ২৩৭টি এবং তৃতীয় দিনে বাকি ২২২টি আপিলের নিষ্পত্তি করা হবে।

আজ শুক্রবার দুপুর পর্যন্ত ১৬১ ক্রমিক থেকে ২৩৮ পর্যন্ত আপিল শুনানি হয়েছে।

ইসি সচিব জানিয়েছেন, ক্রমিক অনুসারে আপিলের নিষ্পত্তি করা হবে। আপিলের ফল সঙ্গে সঙ্গে জানিয়ে দেওয়া হবে। কোনো প্রার্থীর আপিল গ্রহণ করা হলে, তা সংশ্লিষ্ট রিটার্নিং কর্মকর্তাকে জানিয়ে দেওয়া হবে।

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন উপলক্ষে নির্বাচন কমিশনে মোট ৩০৬৫টি মনোনয়নপত্র জমা হয়েছিল।

bottom