Foto

Please Share If You Like This News

Buffer Digg Facebook Google LinkedIn Pinterest Print Reddit StumbleUpon Tumblr Twitter VK Yummly

বুড়িগঙ্গা নদীর তীরে গড়ে ওঠা অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদে জোরালো অভিযান চালাচ্ছে বিআইডব্লিউটিএ। এসব অবৈধ স্থাপনার কোনোটিই অবশিষ্ট রাখা হচ্ছে না।


এরই ধারাবাহিকতায় সরকার দলীয় সংসদ সদস্য হাজী সেলিমের প্রতিষ্ঠান টাইগার সিমেন্টের ভবন গুড়িয়ে দেওয়া হয়েছে। ধ্বংস করা হয়েছে সিমেন্টের শত শত বস্তা। বুধবার ভবনটি উচ্ছেদ করে বিআইডব্লিউটিএ।

শুধু হাজী সেলিমের ভবন নয়, বুড়িগঙ্গা নদীর তীরে ঢাকার কামরাঙ্গীরচরে আরো অনেক স্থাপনাও উচ্ছেদ করা হয়। বহুতল পাকা ভবন, আধা পাকা ভবন এবং ছোট–বড় টিনশেডের ছাপরা ও টংঘর উচ্ছেদ করা হয়।

বিআইডব্লিউটিএ জানায়, বুড়িগঙ্গা নদীর বিশাল জায়গা দখল করে ভবনটি গড়ে তোলেন হাজী সেলিম।

সংস্থাটির কর্মকর্তারা বলছেন, দখলদার যতই ক্ষমতাবান হোক না কেন কাউকে ছাড় দেওয়া হবে না। নদীর তীর দখল মুক্ত করা হবে। তবে কাজটি জটিল। এজন্য সর্বশক্তি নিয়োগ করেছে বিআইডব্লিউটিএ।

ভবন মালিকরা বলছেন, তাদের সমস্ত কাগজপত্র ঠিক আছে। আবার কেউ কেউ বলছেন, বিআইডব্লিউটিএর লোকজন তাদের ভবন উচ্ছেদের বিষয়ে কোনো নোটিশ দেননি। তবে বিআইডব্লিউটিএ বলছে, ভবন মালিকদের কয়েকবার নোটিশ দেওয়া হলেও তারা স্থাপনা সরানো নিয়ে কোনো পদক্ষেপ নেয়নি।

উচ্ছেদ অভিযান বিষয়ে বিআইডব্লিউটিএর পরিচালক (বন্দর) শফিকুল হক বলেন, নদীর জায়গা কাউকে দখল করতে দেওয়া যাবে না। নদীর জায়গায় গড়ে ওঠা অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ অভিযান চলবে।

bottom