Foto

Please Share If You Like This News

Buffer Digg Facebook Google LinkedIn Pinterest Print Reddit StumbleUpon Tumblr Twitter VK Yummly

কুষ্টিয়ায় পুলিশের সঙ্গে 'বন্দুকযুদ্ধে আন্তঃজেলা ডাকাত দলের দুই সর্দার' নিহত হয়েছে। মঙ্গলবার ভোর চারটার দিকে দৌলতপুর উপজেলার আদাবাড়িয়া-ডাংমড়কা সড়কের পেটকাটা ডহর নামক স্থানে এ ঘটনা ঘটে। নিহত দু'জন হলেন- মোফাজ্জেল হোসেন ওরফে মোফা (৪২) ও মহাবুল (৪০)। ঘটনাস্থল থেকে পুলিশ দু'টি এলজি বন্দুক, চার রাউন্ড গুলি ও একটি রামদা উদ্ধার করেছে।


নিহত মোফাজ্জেল হোসেন ওরফে মোফা উপজেলার গরুড়া গ্রামের মছের মন্ডলের ছেলে ও মহাবুল কৈপাল গ্রামের আব্দুর রহিমের ছেলে। মোফার বিরুদ্ধে দৌলতপুর থানায় দশটিসহ মোট ১৫টি ও মহাবুলের নামে দৌলতপুর থানায় পাঁচটিসহ মোট ৭টি মামলা রয়েছে।

পুলিশের দাবি, এ ঘটনায় তাদের কয়েক সদস্য আহত হয়েছে। তারা হলেন- দৌলতপুর থানার এএসআই আসাদুল ইসলাম ও কনস্টেবল জিয়াউর রহমান।  তাদের প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে।

দৌলতপুর থানার ওসি নজরুল ইসলাম জানান, একদল ডাকাত পেটকাটা ডহর এলাকার একটি তামাক ক্ষেতের পাশে ডাকাতির প্রস্তুতি নিচ্ছে- এমন সংবাদের ভিত্তিতে এসআই সাইফুল ইসলামের নেতৃত্বে দৌলতপুর থানা পুলিশের একটি টিম ঘটনাস্থলে অভিযানে যায়। এ সময় ডাকাতেরা পুলিশকে লক্ষ্য করে গুলি ছুড়লে পুলিশও পাল্টা গুলি ছোড়ে। ডাকাতদল পালিয়ে গেলে ঘটনাস্থল থেকে মোফাজ্জেল হোসেন ওরফে মোফা ও মহাবুলকে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় উদ্ধার করা হয়। এরপর তাদের দৌলতপুর হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন। পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে অস্ত্র ও গুলি করেছে।

তিনি আরও জানান, মোফাজ্জেল হোসেন ওরফে মোফা ও মহাবুল জেলার শীর্ষ ডাকাত সর্দার ছিল। কুষ্টিয়া জেলাসহ আশেপাশের জেলায় তারা ডাকাতির নেতৃত্ব দিত। তাদের লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে পাঠানো হয়েছে

bottom