Foto

Please Share If You Like This News

Buffer Digg Facebook Google LinkedIn Pinterest Print Reddit StumbleUpon Tumblr Twitter VK Yummly

১৪ ডিসেম্বর থেকে ১৬ ডিসেম্বর পর্যন্ত তিন দিন নির্বাচনী প্রচারসহ বিভিন্ন কর্মসূচি পালন করবে জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট। এর মধ্যে শহীদ বুদ্ধিজীবী দিবস ও বিজয় দিবসের কর্মসূচিও থাকবে। ঐক্যফ্রন্ট সূত্র বলছে, নির্বাচনী প্রচারের অংশ হিসেবে এই সময়ে বেশ কয়েকটি পথসভা করবে এই জোট।


বৃহস্পতিবার বিকেলে জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের অস্থায়ী অফিস পুরানা পল্টনে জোটের সমন্বয় কমিটির বৈঠকের পর কর্মসূচি ঘোষণা করা হয়।

কর্মসূচির মধ্যে আছে, কাল সকাল আটায় মিরপুর শহীদ বুদ্ধিজীবী স্মৃতিসৌধে শ্রদ্ধা নিবেদন, বেলা দুইটায় মোহাম্মদপুরের টাউন হল বাজারে পথসভা, বেলা তিনটায় ঐক্যফ্রন্টের অস্থায়ী কার্যালয়ে সংস্কৃতিকর্মীদের সঙ্গে মতবিনিময় সভা এবং বিকেল চারটায় শ্যামপুরে পথসভা। সব কটি অনুষ্ঠানেই ঐক্যফ্রন্টের আহ্বায়ক ড. কামাল হোসেন থাকবেন বলে জানানো হয়।

১৫ ডিসেম্বর শনিবার ঢাকা থেকে ময়মনসিংহের উদ্দেশে সড়কপথে পথসভা করবে। এতে কামাল হোসেন নেতৃত্ব দেবেন বলে জানানো হয়েছে। টঙ্গী থেকে এই পথসভা শুরু হবে।

বিজয় দিবস উপলক্ষে ১৬ ডিসেম্বর সকাল নয়টায় সাভারের জাতীয় স্মৃতিসৌধে শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা জানাতে যাবেন ঐক্যফ্রন্টের নেতারা। এ ছাড়া একই দিনে বেলা তিনটায় বিএনপির নয়াপল্টন অফিস থেকে বিজয় র‌্যালি করা হবে।

সমন্বয় কমিটির বৈঠকে গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের ট্রাস্টি জাফরুল্লাহ অভিযোগ করে বলেন, পুলিশ নানাভাবে হয়রানি করছে। এ পরিস্থিতি মোকাবিলায় জনগণকে নির্বাচনী মাঠে থাকতে হবে। এ ছাড়া নির্বাচন কমিশনকে বিব্রত না হয়ে নিজেদের দায়িত্ব পালন করারও আহ্বান জানান তিনি। তিনি ১৫ ডিসেম্বরের পর থেকেই সেনাবাহিনী নামানোর দাবি জানান।

গণফোরাম নেতা জগলুল হায়দার আফ্রিকের সভাপতিত্বে বৈঠকে আরও উপস্থিত ছিলেন বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান আবদুল আউয়াল মিন্টু, ঐক্যফ্রন্ট নেতা শাহ মোহাম্মদ বাদল প্রমুখ।

bottom