Foto

Please Share If You Like This News

Buffer Digg Facebook Google LinkedIn Pinterest Print Reddit StumbleUpon Tumblr Twitter VK Yummly

ঘরের মাঠে টানা চার সিরিজ জেতার নতুন রেকর্ড করেছে নিউজিল্যান্ড। ঘরের মাঠ, পরের মাঠ মিলিয়ে গত সাত সিরিজের ছয়টাতেই জিতেছে তারা। ধারাবাহিক সাফল্যের প্রতিফলন টেস্ট র‍্যাঙ্কিংয়েও। নিউজিল্যান্ডের পরের টেস্ট ফেব্রুয়ারিতে, বাংলাদেশের বিপক্ষে।


টানা চার টেস্ট সিরিজ জেতার পুরস্কার র‍্যাঙ্কিংয়েও পেল নিউজিল্যান্ড। কেন উইলিয়ামসনের দল দক্ষিণ আফ্রিকাকে টপকে টেস্ট র‍্যাঙ্কিংয়ে তৃতীয় স্থানে উঠে এসেছে। কাল প্রকাশিত ২০১৮ সালের সর্বশেষ র‍্যাঙ্কিংয়ে দক্ষিণ আফ্রিকানদের চেয়ে ১ রেটিং পয়েন্টে এগিয়ে কিউইরা। শ্রীলঙ্কাকে ১-০ ব্যবধানে হারানোর পর ১০৭ রেটিং পয়েন্ট হয়েছে নিউজিল্যান্ডের।

দক্ষিণ আফ্রিকা অবশ্য পাকিস্তান সিরিজ শেষেই আবার পেছনে ফেলতে পারে নিউজিল্যান্ডকে। সিরিজে ১-০-তে এগিয়ে থাকা দলটি উঠে যেতে পারে দ্বিতীয় স্থানেও। বছর শেষের র‍্যাঙ্কিংয়ে বাংলাদেশ আছে অষ্টম স্থানে। অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে ২-১–এ এগিয়ে থাকা ভারত (১১৬) সবার ওপরে, ১০৮ পয়েন্ট নিয়ে দুইয়ে ইংল্যান্ড।

ব্যাটসম্যানদের টেস্ট র‍্যাঙ্কিংয়ে ৩ পয়েন্ট হারালেও শীর্ষস্থান ধরে রেখেছেন ভারতের অধিনায়ক বিরাট কোহলি। নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী কিউই অধিনায়ক কেন উইলিয়ামসনের চেয়ে ৩৪ পয়েন্ট এগিয়ে কোহলি। সেঞ্চুরিয়ন টেস্টে ৬ উইকেট নেওয়া কাগিসো রাবাদাই ধরে রেখেছেন বোলিংয়ের শীর্ষস্থান। ইংল্যান্ডের জেমস অ্যান্ডারসনের চেয়ে মাত্র ৬ পয়েন্ট এগিয়ে প্রোটিয়া ফাস্ট বোলার। পাঁচ ধাপ এগিয়ে তিনে উঠেছেন মেলবোর্ন টেস্টে ৯ উইকেট নেওয়া অস্ট্রেলীয় ফাস্ট বোলার প্যাট কামিন্স। কামিন্সের মতো ক্যারিয়ার-সেরা অবস্থানে উঠেছেন ভারতের যশপ্রীত বুমরাও। ম্যাচে ৯ উইকেট নেওয়া বুমরা ১২ ধাপ এগিয়ে উঠেছেন ১৬ নম্বরে।

বাংলাদেশের খেলোয়াড়দের মধ্যে ব্যাটিংয়ে সবার ওপরে সাকিব আল হাসান (২৩ তম)। বোলিংয়ে সাকিবের (২০ তম) চেয়ে এগিয়ে শুধু মেহেদী হাসান মিরাজ (১৭ তম)। অলরাউন্ডার র‍্যাঙ্কিংয়ে সাকিবই ধরে রেখেছেন এক নম্বর জায়গা।

bottom