Foto

Please Share If You Like This News

Buffer Digg Facebook Google LinkedIn Pinterest Print Reddit StumbleUpon Tumblr Twitter VK Yummly

অন্তর্বর্তীকালীন কোচ হিসেবে টানা চার জয়ের স্বাদ পেয়েছিলেন সান্তিয়াগো সোলারি। স্থায়ীভাবে দায়িত্ব পেয়েই হলো চরম বাজে অভিজ্ঞতা। এইবারের মাঠে উড়ে গেছে তার দল রিয়াল মাদ্রিদ। লা লিগায় শনিবার স্থানীয় সময় দুপুরে শুরু হওয়া ম্যাচে ৩-০ গোলে হারে প্রতিযোগিতার সফলতম ক্লাবটি। এবারের লিগে রিয়ালের এটি পঞ্চম পরাজয়। স্পেনের শীর্ষ লিগে রিয়ালের বিপক্ষে এইবারের এটাই প্রথম জয়। দলটির বিপক্ষে আগের আট ম্যাচের সাতটিতে জিতেছিল মাদ্রিদের ক্লাবটি, অন্যটি হয়েছিল ড্র।


পুরো ম্যাচে বল দখলে এগিয়ে ছিল রিয়াল। কিন্তু আক্রমণে আধিপত্য ছিল স্বাগতিকদের। তাদের নেওয়া মোট ১৪টি শটের আটটি ছিল লক্ষ্যে। বিপরীতে অতিথিদের ৯ শটের মাত্র তিনটি ছিল লক্ষ্যে।
ম্যাচের তৃতীয় মিনিটেই গোল খেতে বসেছিল রিয়াল। সতীর্থের বাড়ানো বল বুক দিয়ে নামিয়ে প্রায় ২৫ গজ দূর থেকে কিকের শট পোস্টে লাগলে সে যাত্রায় বেঁচে যায় তারা। একাদশ মিনিটে কাছ থেকে করিম বেনজেমার শট গোললাইন থেকে ফেরান এইবারের স্প্যানিশ ডিফেন্ডার কোতে।

ষোড়শ মিনিটে পাল্টা আক্রমণে এগিয়ে যায় এইবার। কিকের শট গোলরক্ষক থিবো কোর্তোয়া রুখে দিলেও বিপদমুক্ত করতে পারেননি। ছুটে এসে দানি সেবাইয়োস ক্লিয়ার করতে গেলে বল আর্জেন্টাইন মিডফিল্ডার গনসালো এসকালান্তের পায়ে লেগে জালে জড়ায়। ভিএআরের সাহায্য নিয়ে গোলের বাঁশি বাজান রেফারি।

এ নিয়ে লিগে টানা ১১টি অ্যাওয়ে ম্যাচে কমপক্ষে একটি গোল খেল রিয়াল। সবশেষ গত ৩১ মার্চ লাস পালমাসের মাঠে ৩-০ গোলের জয়ে জাল অক্ষত ছিল স্পেনের সফলতম ক্লাবটির।
দ্বিতীয়ার্ধের শুরুর দিকে পাঁচ মিনিটের ব্যবধানে আরও দুই গোল করে ম্যাচের নিয়ন্ত্রণ নিয়ে নেয় স্বাগতিকরা।
৫২তম মিনিটে রিয়াল ডিফেন্ডার আলভারো ওদ্রিওসোলার পা থেকে বল কেড়ে মার্ক কুকুরেইয়া বাড়ান ডান দিকে। আর ফাঁকায় বল পেয়ে কোনাকুনি শটে ঠিকানায় পাঠান স্প্যানিশ ফরোয়ার্ড সের্হি এনরিখ।

আর ৫৭তম মিনিটে অনায়াসে দলের তৃতীয় গোলটি করেন কিকে। বাঁ থেকে কুকুরেইয়ার বাড়ানো বল এনরিখের পায়ে লাগার পর ছোট ডি-বক্সে পেয়ে আলতো টোকায় ফাঁকা জালে পাঠান স্প্যানিশ ফরোয়ার্ড।

১৩ ম্যাচে ছয় জয় ও দুই ড্রয়ে রিয়ালের পয়েন্ট ২০। আর পঞ্চম জয় পাওয়া এইবারের পয়েন্ট ১৮।

bottom