Foto

Please Share If You Like This News

Buffer Digg Facebook Google LinkedIn Pinterest Print Reddit StumbleUpon Tumblr Twitter VK Yummly

ম্যাচের যোগ করা সময়ের সময়ের শেষ মিনিটে গোল করলেন ব্রাজিলিয়ান ফরোয়ার্ড লুকাস মৌরা। পূর্ণ করলেন হ্যাটট্রিক। গোল হতেই উল্লাস করতে ছুটে বেরুলেন টটেনহ্যাম কোচ মৌরিসিও পচেত্তিনো। কিন্তু ঠিক উল্লাস করতে পারলেন না তিনি। হাঁটু মুড়ে মাটিয়ে মাথা নুয়ে কেঁদে ফেলেলেন। চ্যাম্পিয়নস লিগের ফাইনালে উঠেছে স্পার্সরা। নিজেদের ইতিহাসে প্রথমবার। আনন্দের কান্না চোখ ফেঁটে তাই অনায়াসে বেরিয়ে এলো তার এবং তার শিষ্যদের।।


চ্যাম্পিয়নস লিগের সেমিফাইনালের প্রথম লেগে নিজেদের মাঠে স্পার্সরা ১-০ গোলে আয়াক্সের কাছে হারে। দ্বিতীয় লেগে ম্যাচের প্রথমার্ধেই আবার তারা খেয়ে বসে দুই গোল। তবে দ্বিতীয়ার্ধ পুরোপুরি নিজেদের করে নেয় টটেনহ্যাম। করে তিন গোল। ম্যাচের ৫৫ এবং ৫৯ মিনিটে গোল করেন লুকাস মৌরা। এরপর ৯৫ মিনিটে গোল করে হ্যাটট্রিক পূর্ণ করেন তিনি। চ্যাম্পিয়নস লিগের এবারের আসরে রোমান্স উপহার দেওয়া তরুণ আয়াক্সকে কাঁদান। নিজেরাও আনন্দের অশ্রু ঝরান।

চ্যাম্পিয়নস লিগের সেমিফাইনালে প্রথম লেগে ঘরের মাঠে হেরেও দ্বিতীয় দল হিসেবে ফাইনালে উঠল তারা। ১৯৯৬ সালে এই আয়াক্স প্যানাথিনাইকোসের বিপক্ষে এমন কীর্তি গড়েছিল। আগামী জুনের ১ তারিখে মাদ্রিদে তারা মুখোমুখি হবে লিভারপুলের। দুই ইংলিশ ক্লাব মাঠে নামবে ইউরোপ সেরার মুকুট জিততে।

এ নিয়ে তৃতীয়বার ইউরোপ সেরার ফাইনালে দুই ইংলিশ ক্লাব খেলবে। এর আগে ২০০৮ সালে চেলসি এবং ম্যানইউ খেলেছিল। ১৯৭২ সালে আয়াক্স এবং উলভ উয়েফা কাপ ফাইনালে মুখোমুখি হয়। টটেনহ্যাম ইংলিশ লিগের অষ্টম দল হিসেবে চ্যাম্পিয়নস লিগের ফাইনালে উঠল। এবারের ফাইনালে ওঠা দু’দলই প্রথম লেগে হেরেছিল। চ্যাম্পিয়নস লিগের সেমিতে পঞ্চম ফুটবলার হিসেবে হ্যাটট্রিক করলেন মৌরা। সর্বশেষ ২০১৭ সালে অ্যাথলেটিকোর বিপক্ষে হ্যাটট্রিক করেন রোনালদো।

bottom