Foto

Please Share If You Like This News

Buffer Digg Facebook Google LinkedIn Pinterest Print Reddit StumbleUpon Tumblr Twitter VK Yummly

জাতীয় নির্বাচনের মাত্র এক সপ্তাহ আগে আফগানিস্তানে এক নির্বাচনী সমাবেশে বিস্ফোরণে অন্তত ২২ জন নিহত ও ৩০ জনেরও বেশি আহত হয়েছেন। উত্তরপূর্বাঞ্চলীয় প্রদেশ তাখারে নারী প্রার্থী নাজিফা ইউসুফি বেকের সমাবেশের কাছে একটি মোটরসাইকেলে বিস্ফোরক রেখে দেওয়া হয়েছিল বলে শনিবার জানিয়েছেন স্থানীয় কর্মকর্তারা, খবর বার্তা সংস্থা রয়টার্সের। আগামী ২০ অক্টোবর আফগানিস্তানে পার্লামেন্ট নির্বাচন। নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন নাজিফা। তাখারের গভর্নরের মুখপাত্র জাওয়াদ হেজরি জানিয়েছেন, রুস্তক জেলায় চালানো ওই হামলায় অন্তত ২২ জন নিহত ও ৩৬ জন আহত হয়েছেন।


হতাহতদের মধ্যে নিরাপত্তা কর্মকর্তা ও বেসামরিকরা রয়েছেন বলে জানিয়েছেন তাখার পুলিশের মুখপাত্র খলিল আসির।

হামলার পর তাৎক্ষণিকভাবে কোনো জঙ্গিগোষ্ঠী এর দায় স্বীকার করেনি।

প্রার্থী নাজিফার বক্তব্য শোনার জন্য প্রচুর লোক সমাবেশস্থলে উপস্থিত হয়েছিল, তবে বিস্ফোরণের সময় তিনি সমাবেশস্থলে ছিলেন না বলে জানিয়েছে পুলিশ।

আফগানিস্তানের এবারের পার্লামেন্ট নির্বাচনে ৪১৭ জন নারী প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। নির্বাচনী দপ্তর ও সমাবেশে প্রাণঘাতী হামলা সত্বেও এবারের নির্বাচনে নারী প্রার্থীদের অংশগ্রহণ অতীতের যেকোনো সময়ের চেয়েই বেশি।

পার্লামেন্ট নির্বাচন প্রত্যাখ্যান করে একে বানচাল করার ঘোষণা দিয়েছে তালেবান ও দেশটিতে তৎপরতা চালানো অন্যান্য জঙ্গিগোষ্ঠী। ভোটারদের নির্বাচন থেকে দূরে রাখতে নির্বাচনী দপ্তর ও সমাবেশগুলোতে প্রাণঘাতী বোমা হামলা চালানো হচ্ছে।

পাশাপাশি বিচ্ছিন্ন বিভিন্ন হামলায় এ পর্যন্ত সাত পুরুষ প্রার্থী নিহত হয়েছেন, দুই জনকে অপহরণ করা হয়েছে ও আরও চার প্রার্থী জঙ্গিদের হামলায় আহত হয়েছেন বলে জানিয়েছেন নির্বাচনী কর্মকর্তারা।

তালেবানের বিদ্রোহী তৎপরতার কারণে তাজিকিস্তানের সীমান্তবর্তী তাখারে দীর্ঘদিন ধরেই উত্তপ্ত পরিস্থিতি বিরাজ করছে। ভোট বর্জনের জন্য আফগান ভোটারদের ওপর চাপ সৃষ্টির চেষ্টা করছে জঙ্গি এ গোষ্ঠীটি।

bottom