Foto

Please Share If You Like This News


Buffer Digg Facebook Google LinkedIn Pinterest Print Reddit StumbleUpon Tumblr Twitter VK Yummly

এক সময় গাঁজাই ছিল দেশীয় মাদক। প্রচলিত ওই মাদকের বাইরে আসা শুরু হয় হেরোইন। এরপর ভারত সীমান্ত দিয়ে আসে ফেন্সিডিল। হেরোইন, ফেন্সিডিল বন্ধে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী যখন ব্যস্ত তখন সীমান্ত দিয়ে আসা শুরু হয় ইয়াবা। আর ইয়াবার থাবা বন্ধে যখন আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর বিশেষ অভিযান চলছে ঠিক সেই মুহূর্তে সন্ধান মিলেছে নতুন মাদকের। নাম এনপিএস (নিউ সাইকোট্রফিক সাবসটেনসেস)।


Hostens.com - A home for your website

গ্রিন টি (সবুজ চা) প্যাকেটের আড়ালে আকাশপথে আসছে এ মাদক। এ মাদকের মোট সাড়ে আটশ কেজি জব্দ ও নাজিম নামে একজনকে আটকের পর এ তথ্য জানিয়েছে মাদক দ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদফতর। 

সরকারি একটি গোয়েন্দা সংস্থার সহযোগিতায় মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদফতরের একটি টিম শুক্রবার (৩১ আগস্ট) দুপুরে হজরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে অভিযান চালিয়ে চারশ কেজি এনপিএস জব্দ করে। যা চায়ের প্যাকেটের আড়ালে আনা হয়েছিল কয়েক দিন আগে।

এরপর রাজধানীর শান্তিনগরস্থ শান্তিনগর প্লাজার দুইতলায় অভিযান চালিয়ে আরও প্রায় সাড়ে চারশ কেজি নতুন এ মাদক জব্দ করে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদফতর।

মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদফতরের ঢাকা মেট্রো অঞ্চলের সহকারী পরিচালক (উত্তর) মোহাম্মদ খোরশিদ আলম জাগো নিউজকে জানান, এনপিএস চালানটি কয়েক দিন আগে ইথিওপিয়া থেকে আনা হয়। বিকেল ৩টার দিকে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদফতরের গোয়েন্দা শাখার অতিরিক্ত পরিচালক নজরুল ইসলাম শিকদারের নেতৃত্বে অভিযানে বিমানবন্দরের কার্গো গুদাম এলাকা থেকে এ চালান জব্দ করা হয়।

তিনি আরও বলেন, ‘ইথিওপিয়ার রাজধানী আদ্দিস আবাবার জিয়াদ মোহাম্মাদ ইউসুফ এনপিএসের চালানটি পাঠিয়েছেন। নওয়াহিন এন্টারপ্রাইজ নামে একটি প্রতিষ্ঠানের নামে চালানটি পাঠানো হয়। চালানটি কয়েক দিন আগে আসার পর খবর পেয়ে শুক্রবার অভিযান চালিয়ে তা জব্দ করা হয়।

মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদফতরের অতিরিক্ত পরিচালক নজরুল ইসলাম শিকদার বলেন, এক ধরনের গাছ থেকে এনপিএস তৈরি হয়। অধিদফতরের ‘খ’ ক্যাটাগরির এ নতুন মাদক অনেকটা চায়ের পাতার গুঁড়োর মতো। পানির সঙ্গে মিশিয়ে তরল করে সেবন করা হয়। সেবনের পর মানবদেহে এক ধরনের উত্তেজনার সৃষ্টি করে। অনেকটা ইয়াবার মতো প্রতিক্রিয়া হয়।

তিনি বলেন, এনপিএস ইয়াবার মতো কাজ করলেও গ্রিন টির মতো প্যাকেটে আনা হয়। দেশে আবার নতুন করে প্যাকেট করে বাইরে পাঠানো হয়।

খোরশিদ আলম বলেন, ‘বিমানবন্দরের সূত্র ধরে শুক্রবার রাজধানীর শান্তিনগরস্থ শান্তিনগর প্লাজার দুই তলায় অভিযান চালিয়ে আরও প্রায় সাড়ে চারশ কেজি নতুন এ মাদকের চালান জব্দ করা হয়। আটক করা হয় নাজিম নামে একজনকে।

প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে নাজিম মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদফতরের কর্মকর্তাদের জানায়, বিক্রির পাশাপাশি বাংলাদেশই পাচারের রুট হিসেবে ব্যবহার করে আসছিল নাজিম। চায়ের প্যাকেটের আড়ালেই এটি অন্য দেশে পাঠিয়ে আসছে নাজিম।

Report by - https://www.jagonews24.com/national/news/448374

Facebook Comments

bottom