Foto

Please Share If You Like This News

Buffer Digg Facebook Google LinkedIn Pinterest Print Reddit StumbleUpon Tumblr Twitter VK Yummly

দেশের বাজার সম্প্রতি এসেছে ওয়াই সিক্স প্রো ২০১৯ নামে হুয়াওয়ের নতুন স্মার্টফোন। হুয়াওয়ে কর্তৃপক্ষ এ ফোনকে সাশ্রয়ী দামে তরুণদের জন্য ফ্যাশনেবল ফোন হিসেবে তুলে ধরছে। নতুন স্মার্টফোন হিসেবে বাজারে আসা ওয়াই সিক্স প্রো ২০১৯ সংস্করণটিতে বেশি কিছু উল্লেখযোগ্য ফিচার যুক্ত হয়েছে।


ফোনটিতে রয়েছে শক্তিশালী র‍্যাম, ফ্রন্ট ফ্ল্যাশ স্মার্ট ক্যামেরা, ফ্যাশনেবল ডিজাইন, ডিউড্রপ এইচডিপ্লাস ডিসপ্লেসহ দীর্ঘস্থায়ী ব্যাটারি।

অপেক্ষাকৃত কম বাজেটে স্বাচ্ছন্দ্যে স্মার্টফোন ব্যবহারের কথা মাথায় রেখে ফোনটিতে ৩ জিবি র‍্যাম রেখেছে হুয়াওয়ে। সঙ্গে রয়েছে ৩২ জিবি রম। এ ছাড়া এক্সটারনাল স্টোরেজের জন্য ৫১২ জিবি পর্যন্ত মেমোরি কার্ড ব্যবহার করা যাবে। ফলে মেমোরি ফুরিয়ে যাওয়া নিয়ে কোনো চিন্তা করতে হবে না। নিজের মতো করে অ্যাপ, অডিও ও ভিডিও স্টোর করা যাবে নির্বিঘ্নে।

যাঁরা গেম খেলতে ভালোবাসেন, তাঁরাও কোনো রকম ল্যাগ ছাড়াই গ্রাফিকস গেমগুলো অনায়াসে খেলতে পারবেন।

হুয়াওয়ের নতুন স্মার্টফোনটির বিশেষ দিক হচ্ছে এতে ব্যবহার করা হয়েছে ৬ দশমিক শূন্য ৯ ইঞ্চির এইচডিপ্লাস ডিউড্রপ ডিসপ্লে। ফলে, বড় ডিসপ্লের অভিজ্ঞতা পাবেন গ্রাহকেরা। ফোনটির স্ক্রিন টু বডি রেশিও ৮৭ শতাংশ। ৮ মিলিমিটার পুরু স্মার্টফোনটিকে হালকা-পাতলা ফোন হিসেবে মনে হবে।

ফোনটির ক্যামেরাতে রয়েছে প্রিমিয়াম অভিজ্ঞতা। ফোনটিতে সেলফির জন্য ৮ মেগাপিক্সেলে ফ্রন্ট ফ্ল্যাশ ও মোবাইল ফটোগ্রাফির জন্য ১৩ মেগাপিক্সেলের ক্যামেরা রাখা হয়েছে। আর ১.৮ অ্যাপারচারের কারণে অল্প আলোতেও স্মার্টফোনটিতে দারুণ ছবি পাওয়া যাবে।

ফ্যাশনেবল ডিজাইনের স্মার্টফোনটি। মিডনাইট ব্ল্যাক, স্যাফায়ার ব্লু ও অ্যাম্বার ব্রাউন রঙে পাওয়া যাবে।

ওয়াই সিরিজের নতুন এ ফোনটিতে সর্বশেষ কাস্টমাইজড অপারেটিং সিস্টেম অ্যান্ড্রয়েড ৯.০ ও হুয়াওয়ের আপডেট ইএমইউআই ৯.০ রাখা হয়েছে। সাধারণত ফ্ল্যাগশিপ ফোনগুলোতে অপারেটিং সিস্টেমের এমন কনফিগারেশন রাখা হয়।

হুয়াওয়ে কর্তৃপক্ষ বলছে, ওয়াই সিরিজ তরুণদের কাছে বেশ জনপ্রিয়। তরুণেরা যাতে তাদের বাজেট অনুযায়ী প্রিমিয়াম স্মার্টফোন ব্যবহারের অভিজ্ঞতা পায়, সে কথা মাথায় রেখে ওয়াই সিক্স প্রো ২০১৯ বাংলাদেশের বাজারে ছাড়া হয়েছে।

ফোনটিতে চোখের ক্ষতি রোধ করার জন্য রাখা হয়েছে ডিসপ্লে সেফটি। আর ভালো ব্যাটারি ব্যাকআপের জন্য রয়েছে ৩০২০ মিলিঅ্যাম্পিয়ারের ব্যাটারি। পাশাপাশি রয়েছে স্মার্টফেস আনলকসহ ইয়ারফোন ব্যবহার না করেও এফএম রেডিও শোনার সুবিধা।

স্যাফায়ার ব্লু ও মিডনাইট ব্ল্যাক কালারের ফোনটির মূল্য ১২ হাজার ৯৯৯ টাকা। অ্যাম্বার ব্রাউন পাওয়া যাবে ১৩ হাজার ৫৯৯ টাকায়।

বাজারে মিডরেঞ্জ বা মাঝারি দামের স্মার্টফোন বিভাগে অন্যদের প্রতিযোগিতার মুখে ফেলেছে নতুন এ স্মার্টফোন।

 

bottom