Foto

Please Share If You Like This News

Buffer Digg Facebook Google LinkedIn Pinterest Print Reddit StumbleUpon Tumblr Twitter VK Yummly

রাজধানীর নর্দ্দায় সুপ্রভাত বাসের চাপায় এক শিক্ষার্থী নিহতের ঘটনায় রাজপথে আন্দোলনে তার সহপাঠীরা। মেয়রের আশ্বাসের পরও তারা রাজপথ ছাড়েনি। এর মধ্যেই শিক্ষার্থীদের ফাঁসাতে বাসে আগুন ধরিয়ে দেওয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে।


জানা গেছে, শিক্ষার্থীদের আন্দোলন চলাকালে দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে হঠাৎ একজন এসে বাসে আগুন ধরিয়ে দেয়। পরে শিক্ষার্থীরা পানি এনে বাসের ওই আগুন নেভায়। তবে এ ঘটনায় হতবিহ্বল হয়ে পড়েন শিক্ষার্থীরা।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে গুলশান থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) অাবু বকর সিদ্দিকী দৈনিক আমাদের সময় অনলাইনকে বলেন,’একটি বাসে অাগুন দেওয়ার চেষ্টা করা হয়েছিল। কেউ একজন ম্যাচ ঠুকে গাড়িতে দেয়। তখন উপস্থিত শিক্ষার্থীরাই তা পানি দিয়ে নিভে ফেলে। তবে কে আগুন দিয়েছে সেটা জানা যায়নি।’

ওসি অারও বলেন, এখনো শিক্ষার্থীরা রাস্তা অবরোধ করে অান্দোলন করছে। ঘটনাস্থলে পর্যাপ্ত পুলিশ মোতায়েন করা অাছে৷

প্রসঙ্গত, রাজধানীর প্রগতি সরণিতে বাসচাপায় আবরার আহমেদ চৌধুরী (২০) নামে বাংলাদেশ ইউনিভার্সিটি অব প্রফেশনালস (বিইউপি) বিশ্ববিদ্যালয়ের এক শিক্ষার্থী নিহত হয়েছেন। আজ মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ৭টার দিকে রাস্তা পরাপারের সময় সুপ্রভাত পরিবহনের বাসাচাপায় এ দুর্ঘটনা ঘটে।

এ ঘটনার পর থেকে রাস্তা অবরোধ করে বিক্ষোভ করছেন শিক্ষার্থীরা। তাদের আন্দোলন এখনো চলছে। তাদের সঙ্গে যোগ দিয়েছে ইনডিপেনডেন্ট ইউনিভার্সিটির শিক্ষার্থীরাও।

এদিকে এ ঘটনায় বাসের চালক সিরাজুল ইসলামকে আটক করা হয়েছে। এ ছাড়া বাসটি জব্দ করে থানায় নেওয়া হয়েছে বলে জানিয়েছে পুলিশ।

bottom