Foto

Please Share If You Like This News

Buffer Digg Facebook Google LinkedIn Pinterest Print Reddit StumbleUpon Tumblr Twitter VK Yummly

শিরোপা প্রত্যাশী বার্সেলোনা চ্যাম্পিয়ন্স লিগ সেমিফাইনালে আজ বুধবার রাতে নিজেদের মাঠে লিভারপুলের মুখোমুখি হবে। দলটির ফরোয়ার্ড ফেলিপে কোটিনহো তার সাবেক দলের মুখোমুখি হবার আগে জানালেন লিভারপুল কেবল তাদের আক্রমণভাগের ওপরই নির্ভরশীল নয়। তাই প্রতিপক্ষের প্রতিটি বিভাগকেই কড়া নজরদারীতে রাখতে হবে।


মৌসুমের শুরুতে অধিনায়কের দায়িত্ব পাবার পর লিওনেল মেসি চ্যাম্পিয়ন্স লিগের শিরোপাটি ন্যু ক্যাম্পে ফিরিয়ে আনার প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন সমর্থকদের। তাই এবারের আসরটিকে বাড়তি গুরুত্ব দিচ্ছে কোচ আর্নেস্তো ভালভার্দের দল।

গেল বছর ঘরোয়া প্রতিযোগিতায় দারুণ খেললেও চ্যাম্পিয়ন্স লিগের কোয়ার্টার ফাইনাল থেকে বিদায় নেবার কারণ হিসেবে খেলোয়াড়দের অবসাদকে দায়ী করেন অনেকে। এবার তাই মৌসুমের এ গুরুত্বপূর্ণ সময়ে এসে খেলোয়াড়দের বিশ্রামের দিকে ভালোভাবেই নজর দিয়েছেন ভালভার্দে। লিভারপুলের বিপক্ষে এ দ্বৈরথকে মাথায় রেখে শেষ দুই লিগ ম্যাচে মেসি, ইভান রাকিটিচ, সার্জিও বুস্কেটস, সার্জি রবার্তোদের মতো দলের অপরিহার্য খেলোয়াড়দের বিশ্রাম দিয়েছিলেন বার্সা কোচ।

ইংলিশ দলগুলোর বিপক্ষে ইতিহাস ভালো হলেও লিভারপুলের সঙ্গে মুখোমুখিতার ইতিহাস খুব একটা সুখকর নয় বার্সার। প্রতিযোগিতামূলক ম্যাচে আটবার লিভারপুলের মুখোমুখি হয়ে তিন হারের বিপরীতে জয়ের দেখা পেয়েছে মোটে দুটিতে। ২০১৬ সালে য়ুর্গেন ক্লপের এ লিভারপুলের বিপক্ষেই ৪-০ গোলে হেরেছিল বার্সেলোনা। তবে এ হারটি এসেছিল প্রাক-মৌসুম প্রীতি ম্যাচে। আজ তেমন কিছুর পুনরাবৃত্তিই নিশ্চিতভাবে চাইবে ক্লপের দল।

প্রথমবারের মতো নিজের সাবেক দল লিভারপুলের মুখোমুখি হতে যাচ্ছেন বার্সা ফরোয়ার্ড কোটিনহো। এ ম্যাচের আগে ক্লাবের ওয়েবসাইটে ব্রাজিলীয় এ খেলোয়াড় বলেন, "তারা দারুণ এক দল। মানসিকভাবে দারুণ শক্তিশালী তারা। পুরো মৌসুমজুড়েই তাদের খেলা অনুসরণ করেছি আমি। আক্রমণভাগে তারা অসাধারণ, রক্ষণভাগেও। এ ম্যাচে তাই আমাদের সাবধানী হতে হবে।"

প্রতিপক্ষ আক্রমণভাগের প্রশংসা করলেও কোটিনহো জানালেন শুধু এ বিভাগের উপরই নির্ভরশীল নয় দলটি। কোটিনহোর ভাষায়, "তাদের বেশ কিছু গুরুত্বপূর্ণ খেলোয়াড় আছে। শুধু আক্রমণভাগের খেলোয়াড়দের উপরই নির্ভরশীল নয় তারা। তাদের ভালো গুণসম্পন্ন ডিফেন্ডার ও মিডফিল্ডার আছে; যারা কঠোর পরিশ্রম করে এবং দলের জন্য গোলের সুযোগ সৃষ্টি করে। পুরো দলকে নিয়েই আমাদের সতর্ক থাকতে হবে এবং নিজেদের কাজটা সাম্প্রতিক সময়ে যেভাবে করেছি, সেভাবেই করে যেতে হবে।"

আরেক বার্সেলোনা তারকা লুই সুয়ারেজও ক্যারিয়ারের একটা উল্লেখযোগ্য সময় কাটিয়েছেন লিভারপুল শিবিরে। উরুগুইয়ান এ স্ট্রাইকার মনে করেন, দুই দলের খেলার ধরনে পার্থক্য খুবই সামান্য। উত্তেজনাপূর্ণ এক ম্যাচেরই অপেক্ষা করছেন তিনি। সুয়ারেজ বলেন, "লিভারপুলের খেলার ধরনটা দর্শকদের চমকে দিতে পারে। রক্ষণ থেকে খেলা গুছিয়ে আক্রমণে ওঠে এবং তাদের ভালো মানের কিছু মিডফিল্ডার আছে যারা স্ট্রাইকারদের বল যোগান দিতে পারে। তাদের খেলার ধরন অনেকটা আমাদের মতোই। আমার মনে হয় না তেমন কোনো পার্থক্য আছে দুই দলে।"

 

bottom