Foto

Please Share If You Like This News


Buffer Digg Facebook Google LinkedIn Pinterest Print Reddit StumbleUpon Tumblr Twitter VK Yummly

রোহিঙ্গা সংকটের বর্তমান চিত্র সম্পর্কে যুক্তরাষ্ট্রকে জানিয়েছেন পররাষ্ট্র সচিব শহীদুল হক। এ সংকট সমাধানে মিয়ানমারকে সত্যিকার অর্থে উদ্যোগী করতে কার্যকর পদক্ষেপ গ্রহণেও তিনি বাংলাদেশের আহ্বানের কথা পুনর্ব্যক্ত করেছেন।


Hostens.com - A home for your website

যুক্তরাষ্ট্র সফরে সে দেশের বিভিন্ন পর্যায়ের কর্মকর্তাদের সঙ্গে বৈঠকে রোহিঙ্গা সংকটের বিষয়টি বিস্তারিতভাবে আলোচনায় এসেছে বলে জানিয়েছে সংশ্লিষ্ট কূটনৈতিক সূত্র।

সূত্র জানায়, পাঁচ দিনের সফরে যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্র দপ্তরের আন্ডার সেক্রেটারি ডেভিড হালের পাশাপাশি আরও কয়েকজন গুরুত্বপূর্ণ কর্মকর্তার সঙ্গে বৈঠক হয়েছে। এই কর্মকর্তারা হচ্ছেন যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের প্রিন্সিপাল ডেপুটি অ্যাসিস্ট্যান্ট সেক্রেটারি এলিস ওয়েলস, অধিকার ও শ্রমবিষয়ক বিভাগের প্রধান রাষ্ট্রদূত মাইকেল কোজাক, ভারপ্রাপ্ত অ্যাসিস্ট্যান্ট সেক্রেটারি জেনারেল ক্যারোল থমসন এবং দপ্তরের অন্য দু’জন রাষ্ট্রদূত কটন রিজমন্ড ও অ্যাট লার্জ থমসন।

সূত্র জানায়, বৈঠকগুলোতে পররাষ্ট্র সচিব বলেন, বাংলাদেশ মানবিক কারণে মিয়ানমার থেকে প্রাণভয়ে পালিয়ে আসা রোহিঙ্গাদের আশ্রয় দিয়েছে। কিন্তু এখন রোহিঙ্গাদের নিজ দেশে প্রত্যাবর্তন জরুরি হয়ে পড়েছে। দীর্ঘদিন ধরে এ সংকট টেনে নেওয়ার বাস্তবতা বাংলাদেশের নেই। রোহিঙ্গারা কীভাবে বাংলাদেশের আর্থসামাজিক অবস্থার ওপর ভয়াবহ প্রভাব ফেলছে, তাও বিস্তারিতভাবে তুলে ধরেন তিনি। এ কারণে রোহিঙ্গাদের স্বেচ্ছায় মিয়ানমারে ফেরত পাঠানোর জন্য রাখাইনে উপযুক্ত পরিবেশ সৃষ্টিতে মিয়ানমারকে সত্যিকার অর্থে উদ্যোগী করতে ভূমিকা নেওয়ার জন্য তিনি বাংলাদেশের আহ্বান পুনর্ব্যক্ত করেন। জবাবে যুক্তরাষ্ট্রের পক্ষ থেকে এ সংকট সমাধানে কার্যকর ভূমিকা রাখার প্রতিশ্রুতিও পুর্নব্যক্ত করা হয়।

সূত্র আরও জানায়, বৈঠকগুলোতে রোহিঙ্গা সংকটে মানবিক ভূমিকার উজ্জ্বল দৃষ্টান্ত স্থাপনের জন্য যুক্তরাষ্ট্রের পক্ষ থেকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ভূমিকার প্রশংসা করা হয়।

সূত্র জানায়, বৈঠকগুলোতে বাংলাদেশে যুক্তরাষ্ট্রের বিনিয়োগ বৃদ্ধিসহ আঞ্চলিক ও আন্তর্জাতিক ক্ষেত্রে দু’দেশের যৌথ সম্পর্ক আরও নিবিড় করার বিষয়েও আলোচনা হয়। বাংলাদেশে দুর্নীতি প্রতিরোধ এবং সন্ত্রাসবাদ দমনে বর্তমান সরকারকে সহায়তা আরও নিবিড় করার বিষয়েও আলোচনা হয়। এসব বৈঠকে যুক্তরাষ্ট্রে বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত জিয়াউদ্দিন উপস্থিত ছিলেন।

শুক্রবার রাতে পররাষ্ট্র সচিবের দেশের উদ্দেশে রওনা দেওয়ার কথা রয়েছে।

Report by - //dailysurma.com

Facebook Comments

bottom