Foto

Please Share If You Like This News

Buffer Digg Facebook Google LinkedIn Pinterest Print Reddit StumbleUpon Tumblr Twitter VK Yummly

রাষ্ট্রের গোপনীয় তথ্য ফাঁসের অভিযোগে যুক্তরাজ্যের প্রতিরক্ষামন্ত্রী গেভিন উইলিয়ামসনকে বরখাস্ত করা হয়েছে। দেশটির প্রধানমন্ত্রী থেরেসা মে বুধবার তাকে পদত্যাগপত্র দিতে নির্দেশ দেন।


তার বিরুদ্ধে অভিযোগ, ন্যাশনাল সিকিউরিটি কাউন্সিলের (এনএসসি) বৈঠকে হুয়াওয়েকে নিয়ে এক আলোচনার তথ্য তিনি ফাঁস করেছেন। যেখানে শুধু মন্ত্রিসভার সদস্য ও প্রতিরক্ষা বাহিনীর উর্ধ্বতন কর্মকর্তারাই উপস্থিত থাকেন। গেভিন উইলিয়ামসন অবশ্য শুরু থেকেই তার দায় অস্বীকার করে আসছেন।

সম্প্রতি দ্য টেলিগ্রাফের এক সংবাদে বলা হয়, এনএসসির গত সপ্তাহের বৈঠকে চীনের হুয়াওয়ে কোম্পানিকে ফাইভ জি নেটওয়ার্কের কাজ দেওয়া নিয়ে আলোচনা হয়েছে। হুয়াওয়ের সঙ্গে যুক্তরাষ্ট্রের টানাপড়েনের মধ্যে এমন সংবাদে বেশ বিব্রতকর অবস্থায় পড়ে যুক্তরাজ্যের সরকার।

কারণ যুক্তরাষ্ট্র তার বন্ধু রাষ্ট্রগুলোকে হুয়াওয়ের প্রযুক্তি ব্যবহার না করতে আহ্বান জানিয়ে আসছে। ওয়াশিংটনের ধারণা, তাদের প্রযুক্তি চীনের পক্ষে গোয়েন্দাগিরির কাজে ব্যবহৃত হয়। হুয়াওয়ে এই অভিযোগ শুরু থেকেই অস্বীকার করে আসছে।

গেভিন উইলিয়ামসনকে বরখাস্তের পর আন্তর্জাতিক উন্নয়ন বিষয়কমন্ত্রী পেনি মরডান্টকে প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের দায়িত্ব দিয়েছেন থেরেসা মে। প্রথম নারী হিসেবে যুক্তরাজ্যের প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের দায়িত্ব পেলেন তিনি।

 

bottom