Foto

Please Share If You Like This News

Buffer Digg Facebook Google LinkedIn Pinterest Print Reddit StumbleUpon Tumblr Twitter VK Yummly

পৃথিবীর কক্ষপথে ঘুরতে থাকা আন্তর্জাতিক মহাকাশ গবেষণা কেন্দ্রে (আইএসএস) এবার মিলেছে ব্যাক্টেরিয়া। মহাকাশ গবেষণা কেন্দ্রে এই ধরনের ব্যাক্টেরিয়া পাওয়ার খবরে উদ্বেগ প্রকাশ করেছে মার্কিন মহাকাশ গবেষণা সংস্থা নাসা। নাসার বিজ্ঞানীরা বলেন, এ ধরনের ব্যাক্টেরিয়া সাধারণত অফিসে পাওয়া যায়। কিন্তু এই ব্যাক্টেরিয়া কীভাবে মহাকাশ গবেষণা কেন্দ্রে পাওয়া গেল তা জানা দরকার। সেটি জানতে পারলে ভবিষ্যতে দীর্ঘ মহাকাশ সফরের সময়ে আগাম নিরাপত্তা নেওয়া যাবে।


নাসার জেট প্রোপালসন ল্যাবের গবেষক কস্তুরী বেঙ্কটেশ্বরনের কথায়, মহাকাশ সফরে যাওয়া নভোচারীদের নিরাপত্তার জন্য বিষয়টি খুব গুরুত্বপূর্ণ। কারণ ওই সময়ে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা কিছুটা কমে যায়। তাছাড়া সেখানে চাইলেই পৃথিবীর মতো চিকিত্সা ব্যবস্থা পাওয়া সম্ভব নয়। এ কারণে মহাকাশ গবেষণা কেন্দ্রে ব্যাক্টেরিয়ার মতো ক্ষতিকারক বিষয় ভয়ানক বিপদের কারণ হতে পারে।

গবেষকরা জানিয়েছেন, এক বছরের বেশি সময় ধরে আইএসএস-এর বিভিন্ন জায়গা, যেমন জানালা, খাবার টেবিল, শোওয়ার ঘর, শৌচাগার থেকে নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে। "কালচার টেকনিক" ও "জিন সিকোয়েন্সিং" প্রক্রিয়ায় এখন সেগুলোর প্রকৃতি বিচার করা হচ্ছে। মহাকাশে যে ধরনের ব্যাক্টেরিয়া পাওয়া গেছে তার মধ্যে রয়েছে- স্ট্যাফাইলোকক্কাস, ব্যাসিলাস জাতের ব্যাক্টেরিয়া। স্ট্যাফাইলোকক্কাস সাধারণত মানুষের ত্বক, নাকে থাকে। মহাকাশে গিয়ে ব্যাক্টেরিয়ার গুণগত চরিত্র বদল হয়েছে কি না, তা-ও জানার চেষ্টা করছেন বিজ্ঞানীরা। মহাকাশ গবেষণা কেন্দ্রে ঢুকেপড়া এই ব্যাক্টেরিয়াগুলো এখন কতটা সক্রিয় রয়েছে তা জানতে ভবিষ্যতে অধিকতর গবেষণার প্রয়োজন রয়েছে বলে মনে করছেন বিজ্ঞানীরা।

bottom