Foto

Please Share If You Like This News

Buffer Digg Facebook Google LinkedIn Pinterest Print Reddit StumbleUpon Tumblr Twitter VK Yummly

২০২২ কাতার বিশ্বকাপে সরাসরি বাছাইপর্বে খেলার সুযোগ নেই বাংলাদেশের। এশিয়ার ৪৬টি দেশের মধ্যে ৩৪-এর মধ্যে থাকতে পারলে সেই সুযোগ পেত জামাল ভূঁইয়ার দল। অবস্থান ৪১তম হওয়ার কারণে তাই খেলতে হচ্ছে প্রাক-বাছাইপর্ব। আজ সেই প্রাক-বাছাইয়ের সূচি ঠিক হয়ে গেল মালয়েশিয়ার রাজধানী কুয়ালালামপুরে অবস্থিত এশিয়ান ফুটবল কনফেডারেশনের (এএফসি) প্রধান কার্যালয়ে।


লটারির মাধ্যমে নির্ধারিত এই সূচিতে বাংলাদেশের প্রতিপক্ষ লাওস।
মালয়েশিয়া, গুয়াম, লাওস, ম্যাকাও, তিমুর-লেসেথো, মঙ্গোলিয়া, ব্রুনেই, পাকিস্তান, শ্রীলঙ্কা, কম্বোডিয়া, ভুটান ও বাংলাদেশ—এই ১২টি দেশকে নিয়ে এই লটারি অনুষ্ঠিত হয়। এতে মালয়েশিয়া প্রতিপক্ষ পেয়েছে তিমুর-লেসেথোকে, মঙ্গোলিয়া ব্রুনেইকে, পাকিস্তান কম্বোডিয়াকে, শ্রীলঙ্কা ম্যাকাওকে এবং ভুটান গুয়ামকে। আগামী ৬ জুন প্রাক বাছাইয়ে প্রথম লেগের ম্যাচ গুলির তারিখ নির্ধারিত হয়েছে। ১১ জুন অনুষ্ঠিত হবে ফিরতি লেগের খেলা। হোম অ্যান্ড অ্যাওয়ে ভিত্তিতে ছয় বিজয়ী দল উঠে যাবে এশিয়া অঞ্চলের মূল বাছাইপর্বে। সেখানে মোট ৪০টি দেশকে বিভিন্ন গ্রুপে ভাগ করে অনুষ্ঠিত হবে খেলা। ২০১৮ রাশিয়া বিশ্বকাপের বাছাইপর্বে এশিয়ার সেরা ৩৪ দেশের মধ্যে ছিল বাংলাদেশ। তাই সেবার সরাসরি দ্বিতীয় রাউন্ড থেকে খেলার সুযোগ মিলেছিল।
প্রতিপক্ষ হিসেবে লাওস বাংলাদেশের কাছে যথেষ্ট পরিচিত। গত বছর অক্টোবরে বঙ্গবন্ধু গোল্ডকাপে এই লাওসকে সিলেটে ১-০ গোল হারিয়েছিল জেমি ডের দল। গত বছর মার্চে ভিয়েনতিয়েনে আন্তর্জাতিক প্রীতি ম্যাচ ২-০ গোল পিছিয়ে পড়েও শেষ পর্যন্ত ২-২ গোলে ড্র করেছিল বাংলাদেশ। লাওসের বিপক্ষে অন্য ম্যাচটি অবশ্য বাংলাদেশ খেলেছে ২০০৩ সালে ১৬ বছর আগের সেই ম্যাচটি ছিল এশিয়ান কাপ বাছাইয়ের। সে ম্যাচে বাংলাদেশ হেরেছিল ২-১ গোলে।

 

bottom