Foto

Please Share If You Like This News

Buffer Digg Facebook Google LinkedIn Pinterest Print Reddit StumbleUpon Tumblr Twitter VK Yummly

রমজান মাস জুড়ে বিনা তেলে ইফতারির আয়োজন করেছে সাওল হার্ট সেন্টার। বিনা অপারেশনে হৃদরোগ প্রতিরোধ ও প্রতিকারের প্রতিষ্ঠান সাওল হার্ট সেন্টার (বিডি) লিমিটেডের সহযোগী প্রতিষ্ঠান ‘অয়েল ফ্রি কিচেন’ গত বছরের মতো এবারও রমজান মাস জুড়ে বিনাতেলে তৈরি স্বাস্থ্যসম্মত ও সুস্বাদু হরেক রকমের বাঙালি ঐতিহ্যবাহী ইফতারির আয়োজন করেছে।


মানবদেহের জন্য ক্ষতিকর তেলযুক্ত খাবারের সংস্কৃতি বদলে দেওয়ার সামাজিক আন্দোলন চালিয়ে যাচ্ছে এই প্রতিষ্ঠান। রান্নায় ব্যবহৃত বাড়তি তেল হৃদরোগ, ডায়াবেটিস, উচ্চ রক্তচাপ, অতি ওজন, গ্যাস্ট্রিক-আলসার, বদহজম, ক্যান্সারসহ মারাত্মক সব রোগ-ব্যাধির সৃষ্টি করে। মানুষকে ঠেলে দেয় মৃত্যুর মুখে।

রমজান মাসে অতরিক্ত তেল দিয়ে তৈরি ভাজা-পোড়া খাবার খাওয়ার প্রবণতা বৃদ্ধি পায়, যা সারাদিন রোজা রাখার পর রোজাদার ব্যক্তির শরীরের জন্য অত্যন্ত ক্ষতিকর।

তাই সাওল হার্ট সেন্টারের এই তেলহীন ইফতারির আয়োজন।

ইস্কাটন গার্ডেন রোডের ’অয়েল ফ্রি কিচেন’য়ের ইফতারির স্টলে ছোলা, পেঁয়াজু, আলুর চপ, গরুর মাংসের হালিম, চিকেন পাকোড়া, বিভিন্ন ধরনের কাবাব ও কাচ্চি বিরিয়ানীসহ ২৫টিরও বেশি বিনা তেলে তৈরি ইফতারি পদ থাকছে।

৭ মে এই উপলক্ষ্যে ’অয়েল ফ্রি কিচেন’য়ের ইফতারির স্টলে বিনা তেলে তৈরি ইফতারির মাসব্যাপী আয়োজনের উদ্বোধন করেন বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরী কমিশনের চেয়ারম্যান, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক উপাচার্য আআমস আরেফিন সিদ্দিক।
সাওল বাংলাদেশের প্রতিষ্ঠাতা কবি মোহন রায়হান বলেন, “রমজান মাসে রোজা পালনের ফলে মানুষের স্বাস্থ্যের কোনো ক্ষতি তো হয়ই না বরং উন্নতি হয় যদি সে সঠিক নিয়মে খাদ্য গ্রহণ করেন। সারাদিন রোজা থাকার পর আমরা কী খাব আর কী খাব না সেটা একটা সুস্থ জীবন যাপনের জন্য অত্যন্ত জরুরি।”

এই অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব ম. হামিদ, অধ্যাপক ড. সলিমুল্লাহ খান, লেখক আব্দুল হাকিম মজুমদার, মাহবুব হোসেন ডিআইজি এসবি-ঢাকা বাংলাদেশ পুলিশ এবং চৌধুরী আবদুল্লাহ-আল-মামুন ডিআইজি-ঢাকা রেঞ্জ, বাংলাদেশ পুলিশ।

’অয়েল ফ্রি কিচেন’য়ের ইফতারির স্টল প্রতিদিন দুপুর ৩টা থেকে খোলা থাকবে।

bottom