Foto

Please Share If You Like This News

Buffer Digg Facebook Google LinkedIn Pinterest Print Reddit StumbleUpon Tumblr Twitter VK Yummly

কামাল হোসেনের নেতৃত্বে সাত দফা দাবিতে জোট বাঁধা জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট বিএনপির প্রতীক ‘ধানের শীষ’ নিয়ে আসন্ন একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন করার সিদ্ধান্ত জানিয়েছে। মতিঝিলে কামাল হোসেনের চেম্বারে বৃহস্পতিবার দুপুরে জোটের নেতাদের বৈঠকের পর সাংবাদিকদের এ সিদ্ধান্ত জানান ফ্রন্টের অন্যতম নেতা নাগরিক ঐক্যের আহ্বায়ক মাহমুদুর রহমান মান্না।


তিনি বলেন, “আজকে বৈঠকে সিদ্ধান্ত হয়েছে, আমরা যতগুলো দল মিলে জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট করেছি, আমরা সকলে একটি কমন প্রতীকে নির্বাচন করব। সেই কমন প্রতীক হবে ধানের শীষ।”

বিএনপিসহ কয়েকটি নিবন্ধিত ও অনিবন্ধিত দল নিয়ে গত ১৩ অক্টোবর গণফোরাম সভাপতি ড. কামাল হোসেনের নেতৃত্বে সাত দফা দাবিতে জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট গঠিত হয়।

সংসদ ভেঙে, খালেদা জিয়াকে মুক্তি দিয়ে নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে নির্বাচনের দাবি ছিল তাদের ওই সাত দফার মধ্যে।

এসব দাবি নিয়ে আওয়ামী লীগ সভাপতি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে দুই দফা সংলাপে বসেছিলেন ঐক্যফ্রন্টের নেতারা। সেখানে কোনো সমঝোতা না হলেও তারা আন্দোলনের অংশ হিসেবে নির্বাচনে অংশ নেওয়ার ঘোষণা দেন।

আগামী ৩০ ডিসেম্বর অনুষ্ঠেয় একাদশ সংসদ নির্বাচন পোছানোর জন্য বুধবার নির্বাচন কমিশনের সঙ্গেও বৈঠক করে ঐক্যফ্রন্ট। ওই বৈঠক শেষে ঐক্যফ্রন্টের মূল নেতা কামাল হোসেন আশ্বস্ত হওয়ার কথা বললেও ইসির নিরপেক্ষতা নিয়ে জোটের সবচেয়ে বড় দল বিএনপির সংশয় কাটেনি।

ড. কামালের গণফোরাম ও বিএনপি ছাড়াও আসম আবদুর রবের জেএসডি, কাদের সিদ্দিকীর কৃষক শ্রমিক জনতা লীগ এই জোটের নিবন্ধিত দল। এছাড়া মাহমুদুর রহমান মান্নার নাগরিক ঐক্য এবং সুলতান মো. মনসুর আহমেদের জাতীয় ঐক্যপ্রক্রিয়াও আছে ঐক্যফ্রন্টে।

বুধবার নয়া পল্টনে বিএনপি কার্যালয়ের সামনে সংঘর্ষের ঘটনায় পুলিশের ভূমিকার সমালোচনা করে মান্না বলেন, “আমরা খুব স্পষ্ট করে বলতে চাই, বিরোধী দল যাতে নির্বাচনে অংশগ্রহণ করতে না পারে, সেজন্য সব রকমের উসকানি দিচ্ছে সরকার। আমরা এই উসকানি প্রতিরোধ করব।”

তিনি বলেন, “আমরা ধৈর্য্য ধরব। আমাদের সিদ্ধান্ত হয়েছে, সব ধরনের বাধা উপেক্ষা করে আমরা নির্বাচন করব। মানুষের মধ্যে যে সাড়া দেখতে পারছি, এই নির্বাচনে একটা ভোট বিপ্লব হবে স্বৈরাচারের বিরুদ্ধে, এটা আমাদের বিশ্বাস।”

নির্বাচনে আসন ভাগাভাগি নিয়ে ঐক্যফ্রন্টের শরিকদের মধ্যে সিদ্ধান্ত হয়েছে কি না জানতে চাইলে মান্না বলেন, “হয়নি। তবে আমরা একটা যাত্রা শুরু করেছি। আমাদের সবার মার্কা হবে ধানের শীষ।”

ঐক্যফ্রন্ট বিজয়ী হলে প্রধানমন্ত্রী কে হবেন- এই প্রশ্ন তুলেছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের। এ বিষয়ে দৃষ্টি আকর্ষণ করলে তিনি বলেন, “এটা নিয়ে তার এত দুশ্চিন্তা করবার কিছু নেই। আমরা ভোটের ফলাফল দেখার পর নিজেরাই ঠিক করে নিতে পারব কে প্রধানমন্ত্রী হবেন।”

মতিঝিলে কামাল হোসেনের চেম্বারে বেলা ১২টায় জোটের এই বৈঠক শুরু হয়ে দেড়টা পর্যন্ত চলে।

কামালের সভাপতিত্বে বিএনপির মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, জেএসডির আসম আবদুর রব, আবদুল মালেক রতন, কৃষক শ্রমিক জনতা লীগের কাদের সিদ্দিকী, হাবিবুর রহমান খোকা, গণফোরামের মোস্তফা মহসিন মন্টু, সুব্রত চৌধুরী, মুকাব্বির খান, নাগরিক ঐক্যের মাহমুদুর রহমান মান্না, জাহেদ উর রহমান, জাতীয় ঐক্য প্রক্রিয়ার সুলতান মো. মনসুর আহমেদ বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন।

bottom