Foto

Please Share If You Like This News

Buffer Digg Facebook Google LinkedIn Pinterest Print Reddit StumbleUpon Tumblr Twitter VK Yummly

বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া প্যারোলে মুক্তি নেবেন কিনা সেটি তার নিজের এবং পারিবারিক সিদ্ধান্তের বিষয় বলে জানিয়েছেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। আজ সোমবার দুপুরে চন্দ্রিমা উদ্যানে ওলামা দলের নবগঠিত কমিটির সদস্যদের নিয়ে দলের প্রতিষ্ঠাতা জিয়াউর রহমানের সমাধিতে শ্রদ্ধা জানানোর পর তিনি এ কথা বলেন।


ফখরুল বলেন, "প্যারোল একটি বিষয় সেটা আমাদের দলের বিষয় নয়। এটা দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়া যিনি অসুস্থ, এটা তার এবং তার পরিবারের একটি বিষয়। সুতরাং সেটা নিয়ে আমরা খুব বেশি আলোচনা করিনি।"

বাংলা নববর্ষে তিনিসহ দলের তিনজন নেতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয় চিকিৎসাধীন খালেদা জিয়ার সঙ্গে সাক্ষাৎ করেছেন বলেও জানান বিএনপি মহাসচিব।

তিনি বলেন, "অনেকদিন পর রোববার বাংলা নববর্ষে আমরা তিনজন দেখা করার অনুমতি পেয়েছিলাম। এসময় মূলত তার স্বাস্থ্য এবং চিকিৎসার ব্যাপারে কথা হয়েছে। তার মামলার আইনগত দিকগুলো নিয়ে আলোচনা হয়েছে। দেশনেত্রী দলের খোঁজখবর নিয়েছেন, দলের নেতাকর্মীদের ঐক্যবদ্ধ থাকতে বলছেন, জাতীয় ঐক্য অটুট রাখতে বলেছেন। দেশবাসীকে বাংলা নববর্ষের শুভেচ্ছা জানিয়েছেন।"

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে দলের নির্বাচিতরা সংসদে না যাওয়ার সিদ্ধান্তে অটুট আছে বলেও জানান বিএনপি মহাসচিব। তিনি বলেন, "এটাকে তো আমরা নির্বাচিত বলছি না। ফলাফলও প্রত্যাখান করেছি।"এ সময় খালেদা জিয়ার মুক্তি ও গণতন্ত্র পুনরুদ্ধারে নতুন করে আন্দোলনের প্রস্তুতির কথা জানান ফখরুল।

খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে আন্দোলন কর্মসূচি দেওয়া হচ্ছে না- এ নিয়ে তৃণমূল নেতাকর্মীদের ক্ষোভের বিষয়ে দৃষ্টি আকর্ষণ করা হলে বিএনপি মহাসচিব বলেন, "ব্যাপারটা হচ্ছে আন্দোলনের বিভিন্ন ধাপ থাকে, কৌশল থাকে। আন্দোলন বলতে শুধু হরতাল জ্বালাও-পোড়াও না। আমি এই বিষয়টার সঙ্গে একমত হতে পারি না।"

ফখরুল বলেন, "আন্দোলন বলতে বুঝি জনগণকে সঙ্গে নিয়ে সোচ্চার হতে হবে। সেটাকে আমরা আন্দোলন বলছি। তার জন্য কাজ করছি ও প্রস্তুতি নিচ্ছি। ইনশাল্লাহ তাকে এবং গণতন্ত্রকে মুক্ত করতে সক্ষম হবো।"

এ সময় ওলামা দলের আহ্বায়ক শাহ নেছারুল হক, সদস্য সচিব নজরুল ইসলামসহ সংগঠনের নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

 

bottom