Foto

Please Share If You Like This News

Buffer Digg Facebook Google LinkedIn Pinterest Print Reddit StumbleUpon Tumblr Twitter VK Yummly

জানুয়ারির দলবদল যত ঘনিয়ে আসছে, ততই জোরালো হচ্ছে নেইমারের পিএসজি ছাড়ার গুঞ্জন। রিয়াল মাদ্রিদ, বার্সেলোনা— সবাই তাঁকে দলে টানতে আগ্রহী। এই অবস্থায় পিএসজি একের পর এক লোভনীয় প্রস্তাব দিয়ে নেইমারের মন ভোলানোর চেষ্টা করছে। সেই তালিকায় যুক্ত হল আরও এক নতুন পুরস্কার!


দলবদলের সময় আসবে, আর নেইমারকে নিয়ে কানাঘুষা শুরু হবে না, সেটি কীভাবে হয়? গত দুই-তিন বছর ধরেই চলে আসছে এই রীতি। বার্সেলোনা থেকে পিএসজি যাওয়ার পরেও নেইমারকে নিয়ে গুঞ্জন থামেনি। এখন বাজারে নতুন গুঞ্জন, রিয়াল মাদ্রিদ বা বার্সেলোনায় চলে আসতে পারেন নেইমার। রোনালদো যাওয়ার পর কোন বড় তারকাকে দলে আনেনি রিয়াল, শোনা যাচ্ছে রোনালদোর অভাব পূরণে নেইমারের দিকে হাত বাড়িয়েছে ক্লাবটি। অন্যদিকে আবার এটিও শোনা যাচ্ছে নিজের সাবেক সতীর্থকে বার্সেলোনায় ফিরে পেতে ব্যাকুল লিওনেল মেসি। বার্সা কর্তৃপক্ষকে নাকি মেসি বলে দিয়েছেন,ভবিষ্যতের কথা চিন্তা করে হলেও যেন নেইমারকে ন্যু ক্যাম্পে নিয়ে আসা হয়। নেইমারকে নিয়ে বার্সা-রিয়ালের এই ‘টানাটানি’র মধ্যে নেইমারের বর্তমান ক্লাব পিএসজি হাত গুটিয়ে বসে থাকবে, তা কি করে হয়? নেইমার যেন পিএসজিতেই থাকেন, সেটি নিশ্চিত করার জন্য তাঁকে একের পর প্রলোভন দেখিয়ে যাচ্ছে তারা। সর্বশেষ, ‘ন্যাশনাল ব্যাংক অব কাতার’ এর মুখপাত্র বানানো হয়েছে ব্রাজিলিয়ান এই তারকাকে!
নতুন এই চুক্তিতে বলা হয়েছে, নেইমারের মার্কেটিং-স্বত্বের দেখভাল এখন থেকে ‘ন্যাশনাল ব্যাংক অব কাতার কমিউনিকেশনস’ করবে। বিনিময়ে তাদের সকল বিজ্ঞাপনচিত্র, মার্কেটিং ক্যাম্পেইনে দেখা যাবে নেইমারের মুখ। নেইমারের পক্ষে তাঁর বাবা ও অপর পক্ষের হয়ে চুক্তিপত্রে স্বাক্ষর করেন কিউএনবি কমিউনিকেশনস গ্রুপের মহাব্যবস্থাপক ইউসেফ ডারউইশ। এই কিউএনবি কমিউনিকেশনসই পিএসজির অন্যতম বড় স্পনসর, নেইমারদের জার্সির হাতের দিকে তাকালে তাদের লোগো দেখতে পাবেন। পিএসজি আশা করছে, এ রকম বড় বড় চুক্তির জন্য হলেও নেইমার রিয়াল বার্সায় না গিয়ে শেষমেশ পিএসজিতেই থাকবেন!
কিছুদিন আগে শোনা যাচ্ছিল, দলের সবচেয়ে বড় দুই তারকা নেইমার আর কিলিয়ান এমবাপ্পের মধ্যে একজন অবশ্যই ক্লাব ছাড়বেন। পিএসজির সর্বশেষ কর্মকাণ্ডে বোঝা যাচ্ছে, অন্তত নেইমারকে নিয়ে কানাঘুষাটা একটু হলেও কমবে এখন!

bottom